Tepantor

জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহের প্রতিযোগিতায় বিচারকের বিরুদ্ধে অনিয়ম ও আশোভন আচরনের অভিযোগ

২৪ মে, ২০২২ : ১০:১১ অপরাহ্ণ ১০৬

তেপান্তর রিপোর্ট: জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ ২০২২ এর জেলা পর্যায়ে ‘ক’ গ্রুপের আবৃত্তি প্রতিযোগিতায় এক বিচারকের বিরুদ্ধে অনিয়ম ও অভিভাবকের সাথে আশোভন আচরনের অভিযোগে এনে জেলা প্রশাসক বরাবর লিখিত অভিযোগ জমা দিয়েছেন এক অভিবাবক।

Tepantor

আজ ২৪মে (মঙ্গলবার) তাহিয়া তাবাসসুম দিহান নামের এক প্রতিযোগীর অভিবাবক নাদিয়া শাহরিন এ অভিযোগ জমা দেন।
ওই অভিভাবক অভিযোগ করে বলেন, আমার মেয়ে তাহিয়া তাবাসসুম দিহান সাবেরা সোবহান সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থী। আজকে অনুষ্ঠিত জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ ২০২২ এর জেলা পর্যায়ের ‘ক’ গ্রুপের আবৃত্তি প্রতিযোগিতা অংশগ্রহণ করে। আবৃত্তি প্রতিযোগিতার ফলাফল এর ক্ষেত্রে পক্ষপাতিত্ব হয়েছে বলে আমার মনে হয়। এই বিষয়ে আমি বিনিতভাবে জানতে চাওয়ায় প্রতিযোগিতার বিচারক হিসেবে দায়িত্ব পালন করা ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারি কলেজের একজন প্রভাষক মনিরুল আলম আমার সাথে অত্যন্ত অশোভন আচরণ করেন এবং খারাপ ভাষায় কথা বলেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে অভিযুক্ত প্রভাষক মনিরুল আলম বলেন, আমার বিরুদ্ধে করা এই অভিযোগ উদ্দেশ্যে প্রণোদিত এবং মিথ্যা। আমি বিসিএস সম্পন্ন করে গত ১০বছর যাবত জেলা/ উপজেলার বিভিন্ন অনুষ্ঠানে বিচারক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছি। ওই অভিবাবক এর মেয়ে বিজয়ী না হওয়ায় উনি এমন করছেন বলে আমার মনে হয়।

প্রতিযোগিতার মূল দায়িত্বে থাকা জেলা শিক্ষা অফিসার ভারপ্রাপ্ত ফরিদা নাজমীন জানান, এটি একটা সামান্য ভুল বুঝাবুঝির ঘটনা। এখানে ওই মহিলার মেয়েকে বিজয়ী ঘোষণা না করায় উনি প্রতিযোগিতার রুমে উচ্চবাচ্য করলে ওই বিচারক উনাকে রুম থেকে বের হয়ে যেতে বলেন।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক শিক্ষা শেখ মো.শহিদুল ইসলাম বলেন, এমন একটা অভিযোগ জমা পড়েছে বলে জানতে পেরেছি। আমার হাতে এসে পৌঁছালে ঘটনা তদন্ত করে উল্লেখিত ঘটনা সত্য প্রমাণিত হলে নিয়মঅনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Tepantor

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।