Tepantor

আওয়ামী লীগ নেতা আল মামুন সরকারের ছেলেকে বাসা থেকে মাদকসহ আটক করেছে পুলিশ

২৪ নভেম্বর, ২০২২ : ৪:৩১ অপরাহ্ণ ৪০২

তেপান্তর রিপোর্ট: নবনির্বাচিত জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আল মামুন সরকারের একমাত্র পুত্র মাহী সরকারসহ তিনজনকে মাদকসহ মুন্সেফ পাড়া’র বাড়ি থেকে আটক করেছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানা পুলিশ।

জানা যায়, বৃহস্পতিবার দুপুর আড়াইটার সময় সদর থানা পুলিশ মুন্সেফ পাড়ার ঐ বাসায় অভিযান চালিয়ে ৭ বোতল নিষিদ্ধ ফেন্সিডিলসহ তাদের গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত অন্য দুজন হল ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভার ৩ নং ওয়ার্ড কমিশনার বিএনপি নেতা আক্তার মিয়া ছেলে আরিয়ান এবং কলেজ পাড়ার মাজহারুল মোস্তফা মিথিল বা শিথিল।

তাদের আটকের ব্যাপারে নিশ্চিত করেছেন সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ এমরানুল ইসলাম।

তাদের বিরুদ্ধে কোনো গ্রেফতারি পরোয়ানা ছিল কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, জানা মতে নেই,তবে আমরা আরও খতিয়ে দেখছি।

এব্যাপারে মাহীর পিতা নবনির্বাচিত জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আল মামুন সরকার বলেন, আমার জিডির পরিপ্রেক্ষিতে আমিই তাকে পুলিশে আটক করিয়েছি।

বিএনপি নেতা ওয়ার্ড কমিশনার আক্তার হোসেন বলেন, ঘটনার ব্যাপারে আমি কিছু জানি না, খোঁজ নিচ্ছি।

এব্যাপারে ওসি বলেন, তিনি তার ছেলে দ্বারা পারিবারিক হুমকিতে আছেন বলে একটা অভিযোগ দিয়ে রেখেছেন,তবে তাকে মাদকসহই আটক করা হয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক একজন প্রভাবশালী নেতা বলেন, আমি আগেই বলেছিলাম মামুন ভাই জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হলে এবং দলের সেক্রেটারি আবার নির্বাচিত হলে তার ছেলে মাহী’কে কোন ভাবেই নিয়ন্ত্রণ করা যাবে না। আমি যতটুকু জানি আজকে দুপুরে সে তার সাথীদের নিয়ে ইন্ডাস্ট্রিয়াল স্কুলের মাঠে অস্ত্রের মহড়া দিয়ে চলে গেলে পুলিশ তাকে আটক করতে মামুন ভাই এর মুন্সেফ পাড়ার বাসায় অভিযান চালিয়ে মাদকসহ আটক হয়েছে। সেতো বহুদিন যাবত বিভিন্নধরনের মাদক সেবন করে যাচ্ছে, আমারতো মনে হয় পুলিশ ভালো করে তল্লাশি চালালে ইয়াবা এবং আগ্নেয়াস্ত্রও পেতো।

ইন্ডাস্ট্রিয়াল স্কুলের মাঠের ঘটনার ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এরকম ঘটনা একটা ঘটেছে, হুমকি ধমকি দিয়েছে শুনেছি। তবে আমরা আগ্নেয়াস্ত্র পাইনি।

উল্লেখ্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আল মামুন সরকারের ছেলে মাহী সরকারের বিরুদ্ধে অনেকদিন ধরে তরুণী অপহরণ, মাদক ও অস্ত্রসহ আটকের অভিযোগ রয়েছে,তবে প্রতিবারই তার বাবার হস্তক্ষেপে সে ছাড় পেয়ে যায়। তার বাবা আল মামুন সরকার জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হওয়ার পর থেকেই বেপরোয়া চলাফেরা করে যাচ্ছে সে।

Tepantor

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।