Tepantor

কসবায় স্বামীর সঙ্গে অভিমান করে গৃহবধূর আত্মহত্যা

৯ নভেম্বর, ২০২৩ : ৬:৫৯ অপরাহ্ণ

তেপান্তর রিপোর্ট: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় স্বামীর সঙ্গে অভিমান করে তামান্না আক্তার (২৬) নামে এক গৃহবধূ কেরির ট্যাবলেট খেয়ে আত্মহত্যা অভিযোগ উঠেছে।

বৃহস্পতিবার (৯ নভেম্বর) দুপুর ৩টার কসবা পৌরসভার বিশারাবাড়ি এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেছে পুলিশ।

তামান্না আক্তার কসবা উপজেলার বাদৈর ইউনিয়নের মান্দারপুর গ্রামের ফজর পাড়ার মৃত নান্নু মিয়ার মেয়ে।

পরিবার ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ১৪ বছর আগে তামান্না আক্তারকে কসবার বিশারাবাড়ি মৃত রঙ্গু মিয়ার ছেলে আনোয়ার হোসেনের কাছে পারিবারিক ভাবে বিয়ে দেন। তাদের সংসারে আনিকা (১২) ও সিয়াম (২) নামে দুইটি সন্তান আছে। তামান্নার বিয়ের পর থেকে যৌতুকের টাকার জন্য একাধিকবার স্বামীর মার খেতে হয়েছে। দুদিন আগেও যৌতুকের টাকার জন্য তামান্নাকে মারধোর করেছে আনোয়ার৷ এসব বিষয় নিয়ে আনোয়ারের সঙ্গে অভিমান করে তামান্না কেরির ট্যাবলেট খেয়ে আত্মহত্যা করেন।

তামান্নার চাচা উমর ফারুকের অভিযোগ, আনোয়ার ও শ্বশুরবাড়ির লোকজন তামান্নাকে পিটিয়ে হত্যা করেছে। তামান্না কেরির ট্যাবলেট খেয়ে আত্মহত্যা করেনি, তাকে হত্যার পর কেরি ট্যাবলেট খাওয়ানো হয়েছে। এ ঘটনায় আইনগত সহযোগিতা চেয়েছেন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে কসবা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মহিউদ্দিন জানান, পারিবারিক কলহের জেরে এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছে। লাশ ময়নাতদন্ত শেষে নিহতের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করেছি। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট আসলে মৃত্যুর সঠিক কারন বলা যাবে।

Tepantor

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।