নবীনগর: মাদক ব্যবসা করায় গ্রাম্য মেম্বারসহ গ্রেফতার ৪, অভিযোগের তীর চেয়ারম্যানের দিকে

১৫ ডিসেম্বর, ২০১৯ : ৪:৪১ অপরাহ্ণ ৫৫৯

মোঃ সফর মিয়া: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর থানার পুলিশ শনিবার রাতে অভিযান চালিয়ে একজন ইউপিসদস্য সহ চারজন মাদকাসক্তকে গ্রেপ্তার করেছে। গ্রেপ্তার কৃতরা হলেন উপজেলার বড়াইল ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য (মেম্বার) কবির হোসেন (৩৮), চরগোসাইপুরের রুহুল আমীন (৩৫), গোসাইপুরের জালাল মিয়া (৪০) ও ভৈরবনগর গ্রামের মোকাদ্দুস মিয়া(৪৫)। ধৃতদের আজ রবিবার দুপুরে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।
পুলিশ ও এলাকাবাসি জানায়, উপজেলার বড়াইল ইউনিয়নের চর গোসাইপুর গ্রামের ব্যাপারী পাড়ায় দীর্ঘদিন ধরে একজন প্রভাবশালী জনপ্রতিনিধি’র প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ সহযোগিতায় একটি সংঘবদ্ধ মাদক কারবারি চক্র নির্বিঘ্নে ইয়াবা বিক্রী করে আসছিলেন। এতে স্থানীয় যুব সমাজ মাদকের প্রতি মারাত্মকভাবে ঝুঁকে পড়ে।
এ অবস্থায় এলাকাবাসির দাবির পরিপ্রেক্ষিতে নবীনগর থানার এএসআই জুলহাস উদ্দিন একদল পুলিশ নিয়ে শনিবার রাতে ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে ১৫০ পিস ইয়াবাসহ চারজন মাদকাসক্তকে গ্রেপ্তার করে।
এ বিষয়ে বড়াইল ইউপির চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি জাকির হোসেন বলেন,’ মাদকের সাথে কোন আপোষ নেই। মাদকের বিরুদ্ধে আমি ছিলাম, আছি এবং আমৃত্যু থাকবো।’
একজন প্রভাবশালী জনপ্রতিনিধির সহযোগিতায় এলাকায় মাদক কারবার চলছে, এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন,’আমার পরিষদের একজন ইউপি সদস্য মাদকসহ গ্রেপ্তার হওয়ার পরও আমি থানায় এ নিয়ে কোন তদ্বির করিনি। সুতরাং যারা জনপ্রতিনিধিদের নিয়ে কাল্পনিক মন্তব্য করেন, তারা যেন খোঁজ খবর নিয়ে সুনির্দিষ্টভাবে কারও বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন, সেই অনুরোধটুকু করবো।’
নবীনগর থানার ওসি রনোজিত রায়
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে তেপান্তরকে বলেন,”ধৃতদের কোর্টে চালান করা হয়েছে এবং মাদক আইনে মামলাও নেয়া হয়েছে।”

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।