Tepantor

নবীনগরে খাল দখল করে শতাধিক দোকান নির্মাণ

২৮ এপ্রিল, ২০২৪ : ৬:০৯ অপরাহ্ণ

তেপান্তর রিপোর্ট: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরের জিনদপুর ইউনিয়নের বাংগরা বাজারে সওজের খাল দখল করে শতাধিক অবৈধ দোকান নির্মাণ চলছে। সওজ’র একশ্রেণীর অসাধূ কমর্চারী এবং স্থানীয় প্রভাবশালীদের ছত্রছায়ায় এ দখল উৎসবে পরিণত হয়েছে। শুধু দখল নয়, এর পেছনে রয়েছে কোটি টাকার আর্থিক বাণিজ্যও। এতে স্থানিয়দের মাঝে ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছে।

সরজমিনে গিয়ে জানা যায়, কোম্পানীগঞ্জ টু নবীনগর সড়কের পূর্ব পাশে অবস্থিত বাংগরা বাজারেরর সওজের খাল দখল করে চলছে দোকান নির্মাণের কাজ৷ তাছাড়া এই স্থাপনা নির্মাণের ফলে সড়ক ও খাল দখলের ফলে ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে বাজার এলাকার লোকজন।

সম্প্রতি এ বিষয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে লেখা-লেখি হলে পরিবেশ ও প্রকৃতির ক্ষতির বিষয় চিন্তা করে গত ২৩ এপ্রিল নদী ও প্রকৃতি সুরক্ষা সামাজিক আন্দোলন তরী’র নামের একটি সংগঠন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসক বরাবর অবৈধ দখল উচ্ছেদের জন্য আবেদন করেন।

আবেদনের বিষয়ে তরী বাংলাদেশ’ এর আহবায়ক শামীম আহমেদ জানান, বেশ কিছুদিন যাবৎ তরী’র কাছে এমন খবর আসছিলো, বাংগরা বাজারে সড়ক ও খাল দখল করে দোকানপাট ও পাকা স্থাপনা তৈরী করছে দখলদারার।’ এমন সংবাদের সত্যতা যাচাই করতেই গত ২১ এপ্রিল রবিবার নদী ও প্রকৃতি সুরক্ষা সামাজিক আন্দোলন ‘তরী বাংলাদেশ’ এর একটি প্রতিনিধিদল দখলকৃত স্থানটি পরিদর্শন করে। পরে অভিযোগের সত্যতা প্রমাণ পেয়ে গত ২৩ এপ্রিল তরী’র পক্ষ থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসক বরাবর অবৈধ দখল উচ্ছেদের জন্য আবেদন করা হয়।

বাংগরা বাজার কমিটির সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান মো. রবিউল আলম রবি বলেন, প্রত্যেকেই নিজ নিজ দায়িত্বে সড়ক ও জনপদের জায়গা দখল করে দোকান ঘর নির্মাণ করছেন এখানে কোন টাকা-পয়সার লেন-দেন করা হয়নি। তারা পূর্বে থেকে দখল করে ব্যবসা করে আসছিল রাস্তার গাইড ওয়াল নির্মাণ কাজের প্রয়োজনে সাবেক এমপির অনুরোধে তাদের দোকান সরিয়ে নিয়েছিল। এখানে আমার বা আমার পরিবারের কোনো সম্পৃক্ততা নেই।

এই বিষয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সড়ক ও জনপথের (সওজ) নির্বাহী প্রকৌশলী মীর নিজাম উদ্দিন আহমেদ বলেন, বিষয়টি আমরা অবগত আছি,উচ্ছেদ অভিযানের জন্য ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসক বরাবর আবেদন করা হয়েছে। ম্যাজিস্ট্রেট পেলেই আমরা উচ্ছেদ অভিযান করব।

Tepantor

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।