Tepantor

সরাইলে জমকালো আয়োজনে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের মাঝে মেধা-বৃত্তি প্রদান

৬ জুলাই, ২০২৪ : ৭:০৭ অপরাহ্ণ

কাজী আশরাফুল ইসলাম: বেসরকারি ভাবে গড়ে উঠা কিন্ডার গার্ডেন উন্নয়ন সংস্থা (সরাইল,ব্রাহ্মণবাড়িয়া) এর পক্ষ থেকে সরাইল উপজেলার শাহবাজপুর, শাহজাদাপুর এবং নোয়াগাও ইউনিয়নের বিভিন্ন কিন্ডারগার্ডেনের মেধাবী ও কোমলমতী শিশু শিক্ষার্থীদের মাঝে মেধা-বৃত্তি প্রদান করা হয়েছে।গত ৫ জুলাই, শুক্রবার শাহবাজপুর বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের অডিটোরিয়ামে এক জমকালো আয়োজনের মাধ্যমে এই মেধা-বৃত্তি পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শাহবাজপুর বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি মোঃশাহেদ মিয়া বাবুল।
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন শাহবাজপুর বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও সরাইল উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি মোহাম্মদ আলী।
ইকরা কিন্ডার গার্ডেনের প্রতিষ্টাতা পরিচালক ও শাহবাজপুর বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক সিনিয়র শিক্ষক জনাব আবু সাদেক এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শাহবাজপুর বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা কমিটির অবিভাবক প্রতিনিধিবৃন্দ।এছাড়াও অনুষ্ঠানে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী, অবিভাবকসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, ” কিন্ডার গার্টেন স্কুলকে এদেশের প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষার অগ্রদূত বলা হয়ে থাকে।দেশের প্রাথমিক শিক্ষা বিস্তারে এসব স্কুলের অবদান অনস্বীকার্য।প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষা ব্যবস্থায় দেশে সরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের চেয়ে বেসরকারি কিন্ডার গার্টেন স্কুলের সংখ্যা এবং মান দুটোই যথেষ্ট গুরুত্বের সাথে বিবেচনা করা হয়।
প্রাথমিক শিক্ষাকে আরো তরান্বিত করতে কাজ করে যাচ্ছে বিভিন্ন কিন্ডার গার্ডেন স্কুলসমূহ।”
শিক্ষার্থীদের উৎসাহিত করতে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন বছর জুড়ে বিভিন্ন মেধা বৃত্তি প্রতিযোগিতার আয়োজন করে থাকে।
এরই ধারাবাহিকতায় কিন্ডার গার্ডেন উন্নয়ন সংস্থা (সরাইল,ব্রাহ্মণবাড়িয়া)এর পক্ষ থেকে শাহবাজপুর, শাহজাদাপুর এবং নোয়াগাও ইউনিয়নের মধ্যে বেসরকারি ভাবে গড়ে উঠা বিভিন্ন কিন্ডারগার্ডেনের ৫৩ জন শিক্ষার্থীদের মাঝে এই মেধা-বৃত্তি প্রদান করা হয়েছে।এদের মাঝে ট্যালেন্টপুল বৃত্তি পেয়েছেন ২৭ জন এবং সাধারণ গ্রেডে বৃত্তি পেয়েছেন ২৬ জন শিক্ষার্থী।অনুষ্ঠানের পৃষ্টপোষকতা করেন হলি চাইল্ড কিন্ডারগার্ডেনের প্রতিষ্ঠাতা নুরে আলম সিদ্দীকি,
ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা কিন্ডারগার্ডেন উন্নয়ন সংস্থার পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক স্বদেশ চন্দ্র দেবনাথ,
সরাইল উপজেলা কিন্ডারগার্ডেন এসোসিয়েশনের সভাপতি বেলায়েত হোসেন মিল্লাদ,
সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিঃ আরিফুল ইসলাম মুকুল,
শাহবাজপুর বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক নূরুন নাহার বেগম।
পৃষ্ঠপোষকগণ তাদের বক্তব্যে বলেন,” এ ধরনের শিক্ষাবান্ধব কাজে পৃষ্টপোষকতা করে ও সম্পৃক্ত থাকতে পেরে আমরা সকলেই খুব আনন্দিত। ভবিষ্যতেও সুযোগ হলে এধরনের কর্মকাণ্ডতে আমরা সম্পৃক্ত থাকার চেষ্টা করবো।”

ইকরা কিন্ডার গার্ডেন এর প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালক জনাব মোহাম্মদ আবু সাদেক তেপান্তরকে বলেন, “দেশের শিশুদের শিক্ষার মান উন্নত করতে চাইলে শিশুদের শুরু থেকেই পরিচরর্যা করতে হবে।ছোট থেকে সঠিক পরিচর্যার মাধ্যমে শিশুরা শিক্ষা ক্ষেত্রে দ্রুত উন্নতি লাভ করবে।আমি শিক্ষকতা পেশায় থাকার অভিজ্ঞতা থেকে বুঝতে পেরেছি শিক্ষার্থীদের পড়াশোনাতে অনাগ্রহী হবার কারণ হলো যত্নসহকারে পাঠদানের অভাব।তাই আমি শিক্ষকতা জীবন শেষে এলাকার কোমলমতি শিশুদেরকে সঠিকভাবে পাঠদান দেওয়ার জন্য নিজেই একটা কিন্ডার গার্ডেন প্রতিষ্ঠা করেছি।
এখানে শিক্ষকরা শতভাগ সততার সাথে পরিশ্রম আর অনেক যত্ন ও আদর স্নেহ সহকারে পাঠদান দিয়ে থাকেন।”

প্রধান অতিথির বক্তব্যে শাহেদ মিয়া বাবুল বলেন,” কিন্ডারগার্ডেনগুলি শিশুর সামাজিক বিকাশ, শারীরিক বিকাশ, মানসিক বিকাশ, এবং জ্ঞানীয় বিকাশের উপর সমানভাবে ফোকাস করে। এর ফলে কিন্ডারগার্ডেনের শিশুরা বাকী শিশুদের তুলনায় নিজেদেরকে আলাদা করতে পারে।তাই এদিক দিয়ে সরকারের পৃষ্টপোষকতা পেলে শিশুরা আরো দ্রুত এগিয়ে যাবে।”
উক্ত মেধা-বৃত্তি পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে শাহবাজপুর বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের একঝাঁক প্রাক্তন শিক্ষার্থীবৃন্দও উপস্থিত ছিলেন।

শাহবাজপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থী কাজী সালমান তেপান্তর কে বলেন,” শিক্ষার ধরণ,মান এবং পাঠদানের পরিবেশ সব কিছু মিলে শিক্ষার উন্নয়নে অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে বেসরকারি ভাবে গড়ে উঠা এসব কিন্ডারর্ডেনগুলো।এখানে উপস্থিত হতে পারে খুবই আনন্দিত হয়েছি।ভবিষ্যতে আমরাও শিক্ষামূলক কর্মকাণ্ডকে এগিয়ে নিয়ে যেতে কিছু করার প্রেরণা পেলাম এখান থেকে।”

Tepantor

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।