আশুগঞ্জ গুলচত্বরে বেওয়ারিশ ময়লার ভাগার

৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ : ৪:৫৪ অপরাহ্ণ ৩৬০

তেপান্তর রিপোর্ট: ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জের গুলচত্বর এলাকার একটি অংশ এখন ময়লার ভাগারে পরিণত হয়েছে। ফলে এই রাস্তা দিয়ে চলাচলকারী শিক্ষার্থীসহ সাধারণ মানুষকে পড়তে হচ্ছে চরম ভোগান্তিতে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, গুলচত্বরের পূর্বপাশে আড়াইসিধা যাওয়ার রাস্তার মুখে সিএনজি স্ট্যান্ড এলাকাতেই সবচেয়ে বেশি ময়লা আর্বজনা ফেলা হয়।স্থানীয় শিক্ষার্থী ও পথচারীরা বাধ্য হয়ে দুর্গন্ধ সহ্য করে ও  স্বাস্থ্য ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে এখান দিয়ে। এ ব্যাপারটি দেখার যেন কেউ নেই।রওশনআরা  বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী রাইসা বলেন, আমাদের হেটেই স্কুলে যেতে হয়। যখন ওই ময়লার স্তূপের কাছ দিয়ে যাই তখন নাকে রুমাল দিয়ে রাখি, এই রাস্তা পার হওয়ার সময় কয়েকদিন বমিও করেছি।নাম প্রকাশ না করার শর্তে আশুগঞ্জ বাসস্ট্যান্ডের আশপাশের কয়েকজন ব্যবসায়ি জানান, ময়লার দুর্গন্ধের কারনে তারাও স্বাস্তিতে এখানে ব্যাবসা করতে পারছেন না। এতে করে পরিবেশির ক্ষতি হচ্ছে বলে জানান ব্যাবসায়ীরা।

এ বিষয়ে আশুগঞ্জ  উপজেলা  পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান সেলিম পারভেজ তেপান্তর’কে জানান, উপজেলাতে কোন পৌরসভা না থাকায় এই ময়লার দায়ীত্ব কেউ নিতে চায়না। এখানে শহরের ময়লা ফেলার জন্য নির্দিষ্ট কোন ডাম্পিং স্পট নেই। ফলে যেখান-সেখানে মানুষ ময়লা ফেলছে। এখানকার ইউনিয়ন পরিষদেরও এই ময়লা-আর্বজনার জন্য কোন বাজেট নেই। উপজেলা পরিষদেরও কোন বাজেট নেই। তাই এই ময়লার ব্যাপারে সবাই এক প্রকার বিপাকে আছেন। তবু আমরা উপজেলা পরিষদ থেকে চেষ্টা করবো বিষয়টি সমাধানের জন্য কিছু করা যায় কিনা।

ছবি সূত্র: এসবিনিউজবিডি.কম

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।