নাসিরনগর সরকারি হাসপাতালের চিকিৎসক, নার্স ও নিরাপত্তা প্রহরির উপর সন্ত্রাসীদের হামলা

২৭ ডিসেম্বর, ২০১৯ : ১২:০৭ অপরাহ্ণ ২৪১

তেপান্তর রিপোর্ট: ২৬ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার রাত অনুমান ১০টার সময় নাসিরনগর ৫০ শয্যা বিশিষ্ট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে দায়িত্বে থাকা চিকিৎসক, নার্স এবং হসপিটাল প্রহরির উপর সন্ত্রাসীদের ভয়াবহ হামলা হয়েছ। এ সময় দুজন সন্ত্রাসী হাসপাতাল প্রাঙ্গণে প্রবেশ করে নার্সিং ডিউটি রুমে ডুকে দায়িত্বরত নার্সদেরকে ভয়, অকথ্য ভাষায় গালিগালজ ও শারিরীক ভাবে লাঞ্ছিত করার চেষ্টা করে এবং জরুরী বিভাগে দায়িত্বরত মেডিকেল অফিসার (চিকিৎসক)-কেও ভয়, অকথ্য ভাষায় গালিগালজ ও শারিরীক ভাবে আঘাত করতে এলে (সন্ত্রাসী) দায়িত্বরত নিরাপত্তা প্রহরী জনাব মোঃ ছায়েদ মোল্লা তাদেরকে (সন্ত্রাসী) বাধা প্রদান করেন। তখন উক্ত সন্ত্রাসীরা তাকে (ছায়েদ মোল্লা) প্রচন্ড মারধর করে। ফলে তার হাত ভেঙ্গে যায় এবং ০৩ (তিন) দাঁত ভেঙ্গে পরে যায়। তাছাড়া তার সমগ্র শরীলে ঘুষি, কিল এবং বাস দিয়ে আঘাতে চিহ্ন রয়েছে। বর্তমানে তার (ছায়েদ মোল্লা) অবস্থা আশংকা হওয়া রাতেই সদর হাসপাতাল, ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় রেফার্ড করা হয়।

তাছাড়া উক্ত সন্ত্রাসীরা হাসপাতাল চত্ত্বর ত্যাগ করার পূর্বে হাসপাতাল চত্ত্বরে অগ্নিসংযোগ করে দেয়। পরে স্থানীয় লোকজন ও পথচারীদের সহয়তায় আগুন নিবানো হয়।

এ ভয়াবহ ন্যাক্কারজনক হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই.. এবং সঠিক তদন্তের মাধ্যমে সন্ত্রাসীদের চিহ্ন করে সর্বোচ্চ শাস্তি প্রদান করা হোক।
উপজেলা স্বাস্হ্য ও পরিবার পরিকল্পনা ডাঃ অভিজিত রায় বলেন,রাত ৪ ঘটিকার সময় থানা পুলিশ দুই সন্ত্রাসীকে অাটক করেছে।অাজ তাদের বিরোদ্বে মামলা হবে।

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।