ব্রাহ্মণবাড়িয়া হাসপাতালের দরজায় থার্টি ফার্স্ট নাইটে ডিজে পার্টি, সমালোচনার ঝড়

১ জানুয়ারি, ২০২০ : ৫:৩০ অপরাহ্ণ ৮২১

কাজী আশরাফুল ইসলাম::ব্রাহ্মনবাড়িয়া জেলা সদর হাসপাতালের চিকিৎসকদের পক্ষ থেকে ইংরেজি নতুন বছর উপলক্ষে পিঠা উৎসবের আয়োজন করা হয়।কাগজে কলমে পিঠা উৎসবের কথা উল্লেখ করা হলেও সরজমিনে গিয়ে দেখা গেছে উল্টো চিত্র।পিঠা উৎসবের পাশাপাশি মাঝরাত পর্যন্ত চলতে থাকে ডিজে পার্টি।বড় বড় সাউন্ড সিস্টেমের মাধ্যমে শিল্পী এনে গাওয়ানো হয় একের পর এক ডিজে গান।উন্মুক্ত স্থানে এই ধরনের আয়োজনের বিষয়ে প্রশাসনিক নিষেধাজ্ঞা স্বত্বেও চিকিৎসকদের এমন আয়োজন দেখে অনেকে বিস্ময় প্রকাশ করেন।পুরো শহর জুড়ে বয়ে যাচ্ছে সমালোচনার ঝড়।মাঝরাত পর্যন্ত চলতে থাকা গানের শব্দে রোগীদেরকে পড়তে হয় চরম ভোগান্তিতে। হাসপাতালে ভর্তি অস্ত্রোপচারকৃত রোগী ইয়ামিন মিয়া বলেন,ঘুমের ঔষধ খাওয়ার পরেও উচ্চস্বরের গানের শব্দে মাঝরাত পর্যন্ত ঘুমাতে পারেন নি তাই সারা রাত তাকে ব্যাথায় কাতরাতে হয়েছে।এছাড়াও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে হাসপাতাল কম্পাউন্ডে খোদ ডাক্তারদের এই ধরনের কান্ডজ্ঞানহীন কাজকর্ম নিয়ে শহরবাসী ক্ষোভে ফেটে পড়েছেন।আশরাফ শিহাব নামে একজন ফেসবুকে লিখেছেন, “আপনারা যেই হাসপাতালের গেইট বন্ধ করে শিল্পী এনে সাউন্ড বক্স, বাজির শব্দে আনন্দ উল্লাস করলেন,সেই গেইটের ভেতর আবদ্ধ হয়ে অনেক মা তার সন্তানের জন্য,অনেক স্ত্রী তার স্বামীর জন্য,স্বামী তার স্ত্রীর জন্য,সন্তান তার মায়ের জন্য,ভাই তার বোনের জন্য বোন তার ভাইয়ের জন্য,বাবা তার সন্তানের জন্য,সন্তান তার বাবার অসুস্থতার কষ্ট দেখে আর্তনাদ করে চিৎকার করছে।” ইফতার রিফাত নামের আরও একজন লিখেছেন, “ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কারো নজরে আসবে কি!
সদর হাসপাতালে ভিতরে চিকিৎসকদের কনসার্ট।
আতশবাজিতে কনসার্টের সমাপ্তি !
ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে (সদর হাসপাতাল) পিঠা উৎসব নামে ডি জে কনসার্ট চলছে!
প্রিয় চিকিৎসকগন বহি বিশ্বে হাসপাতালে সামনে হর্ণ বাজালে জরিমানা দিতে হয় আমার দেশে হাসপাতালে ডি জে গান বাজনা করা কতটুটু যুক্তিযুক্ত একটু বলবেন কি?
এমন হাজারো ফেসবুক স্ট্যাটাসে মুহূর্তেই ব্যাপারটি ভাইরাল হয়ে যায় পুরো ফেসবুক জুড়ে।এমন তীব্র সমালোচনার ব্যাপারে জানতে চাইলে হাসপাতালের দায়িত্বশীল কেউ এই ব্যাপারে মুখ খুলতে রাজি হননি।

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।