নবীনগরে গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ

১১ জানুয়ারি, ২০২০ : ৯:৩৪ অপরাহ্ণ ৩০৬

মোঃ সফর মিয়া,নবীনগর প্রতিনিধি::ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর পৌর এলাকার জল্লা গ্রামের দুই সন্তানের জননী মর্জিনা বেগম (২৫) নামে এক গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। পারিবারিক কলহের জের ধরে তিনি আত্মহত্যা করতে পারেন বলে প্রতিবেশীরা ধারণা করছেন।
আজ শনিবার সকালে পুলিশ মর্জিনা বেগমের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায়।

ঘটনার বিবরণে জানা যায়, নবীনগর উপজেলার শ্রীরামপুর গ্রামের বাসিন্দা সাদেক মিয়া গত দেড় বছর আগে জল্লা গ্রামে ভাড়া থেকে রাজমিস্ত্রীর কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করে আসছেন। শনিবার সকালে তার স্ত্রী মর্জিনা বেগমের সাথে সাংসারিক বিষয় নিয়ে কলহের সৃষ্টি হয়। একপর্যায়ে ঝগড়া-বিবাদ শেষে সাদেক মিয়া কাজে চলে যাওয়ার পর ঘরের দরজা লাগিয়ে মর্জিনা বেগম ঘরের তীরের সাথে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় তার মরদেহ পাওয়া যায়। পাশের রুমে থাকা মর্জিনার শাশুড়ী তার ছেলের বউয়ের কোন সাড়া শব্দ না পেয়ে বেড়া ভেঙ্গে ঘরে প্রবেশ করে মর্জিনাকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখে চিৎকার শুরু করলে আশপাশের লোকজন জড়ো হয়। নিহত মর্জিনা বেগমের বাপের বাড়ি উপজেলার মহেশপুর গ্রামে। পরে খবর পেয়ে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায় ।

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।