বাংলাদেশী কর্মীদের বকেয়া বেতনের দাবীতে লেবাননে বিমানবন্দরে বিক্ষোভ

১৬ জানুয়ারি, ২০২০ : ৯:৪০ অপরাহ্ণ ৫৬২

মনির হোসেন রাসেল,লেবানন: লেবাননে “রফিক হারিরি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে একটি ক্লিনিং কোম্পানির অধীনে কর্মরত প্রবাসী বাংলাদেশিরা বকেয়া বেতন ডলার বা স্থানীয় মুদ্রা লিরার বর্তমান বাজারমূল্যে পরিশোধের দাবীতে বিক্ষোভ করেছে।
বৃহস্পতিবার (১৬ জানুয়ারি ২০২০) সকালে বিমানবন্দরের বাইরে শতাধিক বাংলাদেশি কর্মীরা বিক্ষোভে অংশ নেয়।
জানা যায়, লিবান নেট নামক একটি ক্লিনিং কোম্পানির অধীনে এই সকল প্রবাসী বাংলাদেশি শ্রমিক বিমানবন্দরে দীর্ঘদিন যাবত কাজ করে আসছিল। গত ৩ মাস যাবত তাদের বেতন ডলারে পরিশোধ করার কথা থাকলেও কোম্পানিটি ডলারে বেতন পরিশোধ না করে স্থানীয় মুদ্রা লিরার আগের বাজার মূল্য (১০০$ ডলার সমপরিমাণ ১ লাখ ৫০ হাজার লিরা) হিসেব করে পরিশোধ করতে চায়। এতে শ্রমিকরা বিক্ষোভ করে এবং পরে শ্রমিকরা কোম্পানীটির এক উর্ধ্বতন কর্মকর্তার নিকট তাদের দাবী দাওয়া পেশ করে।

বিক্ষোভরত শ্রমিকরা জানায়, লেবাননে বর্তমানে ডলার সংকটের কারনে সকল পণ্যের মূল্য উর্ধ্বগতি হওয়ায় সীমিত আয়ের প্রবাসীরা হিমসিম খাচ্ছে।
একজন কর্মী বলেন, কোম্পানি আমাদের বেতন ডলারে পরিশোধ না করলেও স্থানীয় মুদ্রা লিরার যে বর্তমান বাজার মূল্য, সে মূল্য আমরা দাবি করছি। কিন্তু কর্তৃপক্ষ আমাদেরকে লিরার আগের মূল্যেই বেতন পরিশোধ করতে চাইলে আমরা আজ বাধ্য হয়ে রাস্তায় নেমেছি।

তারা জানায় কোম্পানিটির কর্তৃপক্ষ যদি তাদের দাবি পূরন না করে, তাহলে অনির্দিষ্টকালের জন্য কাজ থেকে বিরত থাকবে কর্মীরা।এই ব্যাপারে বিক্ষোভ কারী প্রবাসীরা লেবানন এর বৈরুত দূতাবাসের মান্যবর রাষ্ট্রদূত ‘অাবদুল মোতালেব সরকারের’ সহায়তা কামনা করছে।

উল্লেখ্য, যে গত সেপ্টেম্বর ২০১৯, প্রথম সপ্তাহ থেকেই লেবানন-এ মার্কিন ডলার সংকট দেখা দেয়। পূর্বে লেবানিজ লিরাকে ডলারে রুপান্তরিত করতে প্রতি ১০০$ শত ডলারে দেড় লাখ লিরা লাগতো। ডলার সংকট শুরুর পর তা সাম্প্রতিক সময়ে ২ লাখ ৫০ হাজার লিরা পর্যন্ত পৌঁছেছে।

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।