আখাউড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মেয়াদোত্তীর্ণ সেলাইন পুশ করায় শিশু অসুস্থ

২১ জানুয়ারি, ২০২০ : ১:২৩ অপরাহ্ণ ৩২১

আফজাল খান শিমুল : আখাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মেয়াদোত্তীর্ণ সেলাইন ব্যবহার হচ্ছে। গত সোমবার এক শিশুকে স্যালাইন পুশ করার পর শিশুটি অসুস্থ হয়ে পড়লে বিষয়টি জানাজানি হয়। পরে সেই শিশুকে জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

জানা যায়,বিজয়নগরের রামচন্দ্রপুর গ্রামের ওয়াসীম দস্তগীরের শিশু সন্তান তায়েবাকে (২) সামান্য অসুস্থতা নিয়ে ওই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তখন ফারজানা ও নাজরানা নামে দুই নার্স শিশুকে গত দু-বছর আগেই মেয়াদ শেষ হওয়া একটি ডেক্সট্রস (ভিটামিন) সেলাইন পুশ করেন। এরপরই সাথে সাথে শিশুটির চোঁখ লাল হয়ে যায় এবং সারা শরীরে খিচুনি দেখা দেয়। এ সময় শিশুটি কয়েক বার বমি করে। এরপর এ স্যালাইনটি দ্রত খুলে নেয়া হয়। স্যালাইনটির মেয়াদ শেষ হয়ে গিয়েছিল ২০১৭ সালের মে মাসে।
পরে অবস্থা খারাপ হওয়ায় দ্রুত শিশুটিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।
এ বিষয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে শিশুর পিতা ওয়াসীম দস্তগীর বলেন, তারা আমার বাচ্চাটিকে মেরে ফেলতে চেয়েছিল, আল্লাহ বাচিয়ে দিয়ে গেছে। এ সরকারি হাসপাতালে এর আগেও রোগী ও রোগীর অভিভাবকদের সাথে নার্স ও ওয়ার্ড বয়রা অসৌজন্যমূলক আচরণ করত এবং তাদের দ্বারা নি:গৃহিত হতো।


জানতে চাইলে, আখাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর দায়িত্বপ্রাপ্ত টিএসও ডাঃ রাশেদুল ইসলাম তেপান্তরকে বলেন, এটি সম্পূর্ণ দায়িত্ব অবহেলা। অভিযুক্ত নার্সকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। একটি চার সদস্য বিশিষ্ঠ তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তাদের আগামী তিন দিনের মধ্যে রিপোর্ট জমা দিতে বলা হয়েছে। এরপর রিপোর্ট অনুযায়ী তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।