নাসিরনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসক সংকট

২ অক্টোবর, ২০১৯ : ৩:২৮ অপরাহ্ণ ১৯৯

আব্দুল হান্নান: জেলার নাসিরনগর উপজেলা সদরে অবস্থিত প্রায় চার লক্ষ মানুষের চিকিৎসার একমাত্র মাধ্যম ৫০শয্যা বিশিষ্ট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স। কিন্তু এখানে ডাক্তার সংকটের কারণে ব্যহত হচ্ছে চিকিৎসা সেবা। অনেক গুরুত্বপূর্ণ রোগীকে নিয়ে যেতে হচ্ছে জেলা শহর ও রাজধানীতে। এই সুযোগে স্থানীয় প্রাইভেট হাসপাতাল ও ক্লিনিকগুলো রক্ত চুষে খাচ্ছে পল্লী অঞ্চলের দরিদ্র অসহায় রোগীদের।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে এই হাসপাতালে ২১ জন ডাক্তার কর্মরত থাকার কথা থাকলেও মাত্র ১১জন কর্মরত রয়েছেন। তার মাঝে আবার ৪জন প্রেষনে বিভিন্ন হাসপাতালে রয়েছেন। গুরুত্বপূর্ণ ডাক্তারের মধ্যে জুনিয়র কনসালটেন্ট (গাইনী ও অবস), এম,ও (এ্যানেসথেসিয়া) আবাসিক মেডিকেল অফিসার, জুনিয়র কনসালটেন্ট মেডিসিন, সার্জারী, , চক্ষু, এ,এম,সি,ই, এম,ও, এম,ও প্যাথলজিষ্ট, পদগুলো শূন্য রয়েছে বলে হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে।

অপরদিকে হাসপাতালে কর্মরত থেকেও জুনিয়র কনসালটেন্ট শিশু, কার্ডিওলোজী, চর্ম ও যৌন, আই, এম, ও ডাক্তারা প্রেষনে বিভিন্ন হাসপাতালে রয়েছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার অভিজিৎ রায় জানান, জুনিয়র কনসালটেন্ট (গাইনী ও অবস্) এম,ও, এ্যানেসথেসিয়া পদ দুটি এই হাসপাতালের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তিনি চিকিৎসকের পাশাপাশি হাসপাতালের সিট সংখ্যা বাড়ানো জরুরী বলে জানান। তিনি বলেন ৫০টি সিট থাকলেও প্রতিদিন ৮০ থেকে ৮৫ জন রোগীকে ভর্তি করতে হচ্ছে। সিট সংকটের কারনে অনেকেই বারান্দায় ও মেঝেতে অবস্থান করছে। দ্রুত চিকিৎসকের ব্যবস্থা গ্রহন করতে ভুক্তভোগীরা স্থানীয় সংসদ সদস্যসহ সংশ্লিষ্ট উর্ধতন কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি কামনা করছে।

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।