কসবায় নলকূপ বসাতে গিয়ে বিকট শব্দে বেড়িয়ে এলো গ্যাসের খনি

৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ : ২:৪২ অপরাহ্ণ ১০১৩

আশরাফুল মামুন: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবার বায়েক ইউনিয়ন পরিষদের বিদ্যানগর শেরে বাংলা উচ্চ বিদ্যালয়ে নলকূপ বসানোর জন্য কূপ খনন কাজের সময় অবিরাম তীব্র গতিতে পানি ও গ্যাস বের হচ্ছে।
গতকাল সকাল ৮ টার সময় হঠাৎ করে বিকট শব্দে ‍ওই কূপ থেকে গ্যাস নির্গত হতে থাকে। এতে হুমকির মুখে পড়েছে বিদ্যালয়ের দুটি ভবন। আশেপাশের এলাকায় কাঁদা পানি তে প্লাবিত হয়ে যায়। শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে অনির্দিষ্টকালের জন্য বিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা করেছে প্রধান শিক্ষক ও বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।
বিপদের আশঙ্কায় আতঙ্ক বিরাজ করছে মানুষের মাঝে। নিরাপত্তায় দায়িত্ব পালন করছে কসবা থানা পুলিশ ও স্থানীয় বিজিবি ক্যাম্পের সদস্যরা। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন ভারপ্রাপ্ত উপজেলা নির্বাহী অফিসারের দায়িত্বে থাকা সহকারী কমিশনার ভূমি মো. জাহাঙ্গীর হোসেন, কসবা থানা অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ লোকমান হোসেনসহ উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা পরিষদের নেতৃবৃন্দ।
বায়েক ইউপি চেয়ারম্যান ও শেরে বাংলা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আল মামুন ভূঁইয়া জানান, বিদ্যালয়ের পুরাতন টিউবওয়েলটি কাজ না করায় সরকারিভাবে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের তত্ত্বাবধানে একটি টিউবওয়েল বসানোর কাজ করছিল শ্রমিকরা। গত তিন দিনে প্রায় সাড়ে নয়শত ফুট বোরিং করার পর বালি এবং পানির লেয়ার পাওয়ায় ফিল্টার পাইপ লাগানোর জন্য পাইপ উপরের দিকে তুলছিল। আনুমানিক দেড়শত ফুট উপরে তুলার পর হঠাৎ করে বিকট শব্দে গ্যাস উঠতে থাকে। আজ ২ দিন হলো গ্যাস উদগীরন গতি বেড়েই চলেছে।
একই উপজেলায় সালদা নদী নামে আরেকটি গ্যাসক্ষেত্র রয়েছে । সালদা নদী গ্যাস ক্ষেত্রের প্রসেস প্লান্ট অপারেটর জনাব রেজাউল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান , খবর পেয়ে বাপেক্সের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছে প্রাথমিক পরীক্ষা করে নিশ্চিত হয়েছেন এই কাঁদা পানির সাথে প্রচুর পরিমাণে মিথেন গ্যাস রয়েছে । তিনি আরো বলেন এখনই এই কুপ টি বন্ধ করা যাচ্ছে না একটু সময় লাগবে।

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।