যথাযোগ্য মর্যাদায় মালয়েশিয়ায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও শহীদ দিবস পালিত

২১ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ : ১১:৪১ পূর্বাহ্ণ ১৫৭

আশরাফুল মামুন::বাংলাদেশ হাইকমিশন কুয়ালালামপুর মালয়েশিয়ায় আজ যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন করা হয়। আজ একুশে ফেব্রুয়ারি শুক্রবার সকাল সাড়ে ৮টায় রাজধানী কুয়ালালামপুরে দূতাবাস কার্যালয়ে অনুষ্ঠানের শুরুতে জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও অর্ধনমিতকরণ করেন হাইকমিশনার মহ. শহীদুল ইসলাম। হাইক্মিশন চত্ত্বরে নির্মিত অস্থায়ী শহীদ মিনারে বাংলাদেশ হাইকমিশন এবং বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও প্রবাসী সংগঠন পুষ্পাঞ্জলি অর্পন করে। অতঃপর ভাষা শহীদদের স্মরণে নিরবতা পালন এবং দেশ ও জাতির সমৃদ্ধি ও শান্তি কামনা করে বিশেষ দোয়া করা হয়।
অনুষ্ঠানে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের মহামান্য রাষ্ট্রপতি জনাব মোঃ আব্দুল হামিদ এঁর বাণি পাঠ করেন বাংলাদেশ হাইকমিশনের ডিফেন্স এডভাইজার কমোডর মুসতাক আহমেদ, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এমপি মহোদয়ের বাণী পাঠ করেন ডেপুটি হাইকমিশনার ও দূতালয় প্রধান মিস ওয়াহিদা আহমেদ। মাননীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রী ড এ কে আবদুল মোমেন এমপি মহোদয়ের বাণি পাঠ করেন কাউন্সেলর (শ্রম) জনাব মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম। মাননীয় পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী জনাব মোঃ শাহরিয়ার আলম এমপি মহোদয়ের বাণী পাঠ করেন জনাব মোঃ মশিউর রহমান তালুকদার, কাউন্সেলর (পাসপোর্ট এন্ড ভিসা) এবং সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী জনাব কে এম খালিদ এমপি’র বাণি পাঠ করেন জনাব মোঃ রাজিবুল আহসান, কাউন্সেলর (কমার্সিয়াল) ।
অনুষ্ঠানে মান্যবর হাইকমিশনার বলেন, মাতৃভাষা প্রতিষ্ঠার জন্য সংগ্রাম ও জীবন দেওয়ার ইতিহাস একমাত্র গর্বিত বাঙ্গালি জাতিরই আছে। এই ভাষা সংগ্রামের অর্জনেই লুকিয়ে ছিল বাংলাদেশের স্বাধীনতা যা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে বাঙ্গালি অর্জন করে। বর্তমান মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাদের ভাষা সংগ্রামের রক্তাক্ত অধ্যায় একুশে ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। বর্তমানে তাঁরই নেতৃত্বে ইতিহাস আর ঐতিহ্যকে সমুন্নত রেখে বাংলাদেশের উন্নয়নের অগ্রগতি আজ দৃশ্যমান। তিনি দেশের উন্নয়নে প্রবাসীদের অবদানের কথা কৃতজ্ঞতার সাথে স্মরণ করেন।

অনুষ্ঠানে হাইকমিশনের কর্মকর্তা ও কর্মচারিদের পরিবার ছাড়াও আরো উপস্থিত ছিলেন, মালয়েশিয়া আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক কমিটির রেজাউল করিম রেজা, ওহিদুর রহমান ওহিদ, কামরুজ্জামান কামাল, রাশেদ বাদল,এ কামাল হোসেন চৌধুরী, হুমায়ুন কবির, নুর মোহাম্মদ ভুইয়া, হুমায়ুন কবির আমির, সাখাওয়াত হোসেন, আ: বাতেন ।
মালয়েশিয়া আওয়ামীলীগ প্রস্তাবিত কমিটির, জসিম উদ্দিন চৌধুরী, কামরুজ্জামান কামাল, মনিরুজ্জামান মনির, সাখাওয়াত হোসেন তিনু, রুহুল আমিন, আওয়ামী মহানগর কমিটির, এ আর মামুন, রাসেল মোল্লা, সাইদুর রহমান সাঈদ সরকার, অনিক আমিন এবং আওয়ামী যুবলীগের মনসুর আল বাশার সোহেল, জহিরুল ইসলাম জহির, মুজিবুর রহমান বাবু, আল-আমিন আকাশ, রেজাউল হক লায়ন, মান্নান মাতবর, ডলার, আকুববর মাহমুদ, তোফাজ্জল খান।আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের, জি এম বাবুল, সোহাগ সরকার
মালয়েশিয়া শ্রমিক লীগের, নাজমুল ইসলাম বাবুল, মোহাম্মদ সেলিম, মোহাম্মদ আনোয়ার, জাকির হোসেন এবং ছাত্রলীগসহ মালয়েশিয়াস্থ প্রবাসী বাংলাদেশের নাগরিক ও বিভিন্ন সংগঠন অংশগ্রহণ করেন।

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।