সরাইলে চাঞ্চল্যকর রকেট হত্যার ঘটনায় প্রতিবাদ সভা

২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ : ৩:৩৬ অপরাহ্ণ ৪৭৮

তেপান্তর রির্পোট: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে আলোচিত সাবেক ইউপি সদস্য রকেট হত্যার ঘটনায় প্রতিবাদ সভা ও দোয়ার আয়োজন করা হয়েছে । আজ দুপুর ১২টায় সরাইল সদরে শহিদ মিনার প্রাঙ্গনে এ সভার আয়োজন করা হয় । এতে সাবেক চেয়ারম্যন মো. ইদ্রিস মিয়ার সভাপতিত্বে প্রধান অথিতি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক সংসদ সদস্য এড জিয়াউল হক মৃধা, বিশেষ অথিতি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সরাইল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যন রফিক উদ্দিন ঠাকুর, সদর চেয়ারম্যন আ. জব্বার, জাতীয় র্পাটির নেতা হুমায়ুন কবির, মুক্তিযুদ্ধা ডেপুটি কমানডার আনোয়ার হুসেন, আওয়ামীলগি নেতা হাজী মাফুজ আলী , হাজী ইকবাল হুসেন , শ্রমীক নেতা ইনু মিয়া প্রমূখ।

ঘটনার পর থেকে টানা ১০ দিন পর গতকাল ফরিদপুর জেলার সদর এলাকায় পুলিশ অভিযান চালিয়ে ১১জনকে গ্রেফতার করে। এর আগে ৬ জন আসামীকে বিভিন্ন এলাকা থেকে গ্রেফতার করে আদালতে মাধ্যমে জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।
উল্লেখ্য, গত ১৩ ফেব্রয়ারি বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে উপজেলা সদরে প্রাতঃবাজারে আচমকা ১৫ থেকে ২০ জন লোক পর পর দু’টি হাত বোমা বিস্ফোরণ ঘটিয়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করে। এরপর তারা রকেট মেম্বারের ওপর হামলা চালিয়ে কুপিয়ে তাঁর একটি হাত ও পা প্রায় বিচ্ছিন্ন করে ফেলে। চাঞ্চল্যকর “রকেট মেম্বার হত্যাকাণ্ডে” জড়িত ২২ জনের বিরুদ্ধে হত্যা ও বিস্ফোরক দ্রব্য আইনে গত ১৪ ফেব্রুয়ারি সরাইল থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। মামলার বাদী নিহত রকেট মেম্বারের ছেলে শাহনেওয়াজ রনি।

এ ব্যপারে সহকারি পুলিশ সুপার(সরাইল র্সাকেল)মো. মাসুদ রানা বলেন, গতকাল পুলিশ অভিযান চালিয়ে এ মামলার এজাহারভুক্ত ফরিদপুর জেলার সদর এলাকা থেকে ১১ জন আসামীকে আটক করা হয়েছে । আমরা ইতিমধ্যে মামলার এজাহারভুক্ত ১৬ জন ও এজাহারের বাইরে একজনসহ ১৭ জনকে গ্রেফতার করেছি। তিনি আরো বলেন, আমরা এই হত্যাকাণ্ডকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব সহকারে দেখছি। অভিযুক্ত কেউ রেহাই পাবে না ।

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।