নাসিরনগরে স্বামীকে আটকে রেখে স্ত্রীকে গণধর্ষণ

২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ : ৪:২৪ অপরাহ্ণ ৩২১

মোঃ আব্দুল হান্নান: জেলার নাসিরনগর উপজেলার ধরমন্ডল ইউনিয়নের ধরমন্ডল গ্রামে স্বামীকে খালি ঘরে আটকে রেখে স্ত্রীকে পাশের ঘরে নিয়ে গণধর্ষণ করার অভিযোগে অাদালতে মামলা হয়েছে।
ওই ঘটনায় ধর্ষিতার স্বামী মাসুক মিয়া বাদী হয়ে ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২০ তারিখে ব্রাক্ষণবাড়িয়ার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে মামলা করেন। অাবু কালাম,মুইধর মিয়া,শেখ ফরিদ ও হৃদয় মিয়া নামে ৪ জনকে অাসামী করে এ মামলা দায়ের করা হয়।

বাদীর মামলা সুত্রে জানা গেছে, ২৪ ফেব্রুয়ারী সোমবার রাতে বাদীর স্ত্রী রুহেলা বেগম- (২০)কে গণধর্ষণ করে তার স্বামীর চার চাচাতো ভাই মিলে।

ভিকটিম রুহেলা বেগম বলেন- ৩ দিন যাবৎ তাকে ও তার স্বামী মাসুক মিয়াকে জায়গা সম্পত্তির বিরোধের জের ধরে বাড়িতে আটক করে রাখে মাসুকের চাচাতো ভাই আবু কালাম-৩৫, শেখ ফরিদ- ৩২ ও মুইধর-মিয়া ৩৫ ও হৃদয় কে।

ভিকটিম অারো জানায় রাত অনুমান ৩ ঘটিকার সময় স্বামীকে অন্য কক্ষে আটক করে আমাকে শেখ ফরিদের কক্ষে নিয়ে পালাক্রমে আবু কালাম, শেখ ফরিদ ও মুইধর মিয়া সহ চার জন গণধর্ষণ করে।

তিনি আরো বলেন, ধর্ষণের পরপর আমাকে ও আমার স্বামীকে তারা ছেড়ে দেন। তারপর সকালে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে এসে চিকিৎসা নেই।

নাসিরনগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ সাজেদুর রহমানের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করে জানতে চাইলে, এ ধরনের কোন ঘটনার খবর তিনি জানেন না বলে জানান।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জজ কোর্টের অাইনজীবি এডঃ মোঃ অাতিক জানান,অাদালত মামলাটি অামলে নিয়ে এফ,অাই, অার হিসেবে গণ্য করে তদন্ত পূর্বক প্রয়োজনীয় অাইনগত ব্যাবস্থা গ্রহন করতে ওসি নাসিরনগর থানাকে নির্দেশ দিয়েছেন।

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।