নাসিরনগরে জোর পূর্বক মুক্তিযোদ্ধার জায়গা দখলের অভিযোগ

২ মার্চ, ২০২০ : ৬:৩৪ অপরাহ্ণ ২৩৩

মোঃ আব্দুল হান্নান: জেলার নাসিরনগরে জোর পূর্বক এক সংখ্যালঘু মুক্তিযোদ্ধা প্রায় কোটি টাকা মূল্যের সম্পত্তি দখল করে নেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এই ঘটনায় কুন্ডা ইউনিয়নের কুন্ডা গ্রামের সংখ্যা মুক্তিযোদ্ধা প্রবীর কুমার চৌধুরী কিরণ তার সম্পত্তি উদ্ধারের দাবীতে ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২০ তারিখে সহকারী কমিশনার ভূমি নাসিরনগর বরাবর এক লিখিত অভিযোগ দাখিল করেছে।

মুক্তিযোদ্ধার লিখিত অভিযোগে জানা গেছে, কুন্ডা ইউনিয়নের কুন্ডা কোনাপাড়া গ্রামের ভূমি দস্যু মোঃ দানু মিয়া কিরণ চৌধুরীর বাড়ীর কেয়ার টেকার এর কাছ থেকে কিছু ভূয়া কাগজপত্র সংগ্রহ করে আংশিক জায়গা ক্রয় দেখিয়ে ওই অভিযোগকারী সংখ্যা লঘু মুক্তিযোদ্ধার কুন্ডা ইউনিয়নের বড়িয়াচং মৌজার ভিটি, বাড়ী, পুকুর, ডোবা ও নাল মিলে প্রায় কোটি টাকা মূল্যের ১০৯ শতাংশ ভূমি দীর্ঘ দিন যাবৎ জোর পূর্বক দখল করে রেখেছে।

প্রবাবশালী ভূমি দস্যু দানু মিয়ার কবল থেকে ভূমি উদ্ধার করতে গেলে অভিযোগকারী ও পরিবারের লোকজনকে প্রান নাশের হুমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগে জানা গেছে। বর্তমানে ভূমি দস্যুদের অব্যাহত হুমকিতে অভিযোগ কারী ও তার পরিবারের লোকজন চরম নিরাপত্তহীনতায় ভুগছে ও আতংকে রয়েছে।

এ বিষয়ে ভুমি দস্যু দানু মিয়ার সাথে কথা বলতে তার বাড়িতে গেলে সাংবাদিকের সাথে কথা বলতে ও ক্যামেরার সামনে আসতে রাজি হয়নি দানু মিয়া। এক পর্যায়ে দানু মিয়ার এক ছেলে ঘর থেকে দৌড়ে এসে সাংবাদিকের উপর তেড়ে উঠে।

উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি তাহমিনা আক্তার অভিযোগটি তদন্ত পূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করতে ইউনিয়ন সহকারী ভূমি কর্মকতা কুন্ডাকে নির্দেশ দেন।

এ বিষয়ে কুন্ডা ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা মোঃ নবী হোসেনের সাথে যোগাযোগ করে সংখ্যা লঘু মুক্তিযোদ্ধার অভিযোগ সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, অভিযোগটি মাত্র আমার হাতে এসে পৌচেছে। আমি দানু মিয়াকে কাগজ পত্র নিয়ে আসতে বলেছি। বিষয়টি আমি সরেজমিন তদন্ত করে বিস্তারিত বলতে পারব।

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।