তৈল মর্দন করিয়া সফল হওয়া যায়, স্বার্থক হওয়া যায় কি?

৯ মার্চ, ২০২০ : ১১:২২ পূর্বাহ্ণ ৮১৪

সীমান্ত খোকন: ‘সত্য বল সু-পথে চল ওরে আমার মন’। লালন সাই’র এই গান খানি বর্তমান সময়ে অপ্রয়োজনীয় নাকি খুবই প্রয়োজনীয় তাহা ঠিক বুঝিয়া উঠিতে পারিতেছিনা। তবে ইহা যে বর্তমান সমাজে খুবই হাস্যকর গীতি তাহা ঢের বুঝিতে পারিতেছি। কেননা, কিছুদিন আগে যখন জনৈক ব্যাক্তির সহিত আমার আলাপন হচ্ছিল তখন এই প্রসঙ্গ আসিতেই তিনি জল্লাদের মতো হাসিয়া উঠিলেন। কহিলেন, ওসব ‘লালন ফালন’ বাদ দাও মিয়া। এখন যুগ কম্পিউটারের, যে যাহাকে মারিয়া যত বেশি খাইতে পারে সে তত বেশি সম্মানি ও সফল মানব হিসেবে সমাজে স্বীকৃত।

সে যাহাই হোক, পৃথিবীর সব মানবকে দিয়ে যে সব কর্ম হয়না ইহা স্বীকার না করিবার কোন উপায় নেই। তৈল মর্দন,মিথ্যা কথন,অশার বাণী ও নোংরা রাজনীতি ওসব অন্তত আমাকে দিয়ে সম্ভব নাহ্। ছোট্র জীবনে এই আমাকে আমি যতটুকুই চিনিয়াছি তাহা থেকেই উপরোক্ত কথা খানি বলিয়াছি। ওইসব করিতেও কিন্তু এক প্রকার প্রতিভা’র প্রয়োজন হয়, যাহা আমার মাঝে নেই। আমি প্রতিভাহীন, আমি আযোগ্য। তাই আমি আন্তরিক ভাবে ক্ষমাপ্রার্থী। মাঝে মধ্যে, চকিতে-চমকে মনের গহিনে এমন ভাবনাও উদয় হয় যে, ‘আমি বোধহয় এই পৃথিবীর যোগ্যই নয়’। এখানে থাকিবার কোন অধিকার আদৌ আমার আছে কি?

এক সময় পরিবার ও সমাজ সত্য কথা বলিবার ও সঠিক পথে চলিবার উপদেশ দিতো, উৎসাহ দিতো। এখন বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই এর উল্টোটা হয়। এখন ওইসব করিবার জন্য দৃঢ় ভাবে নিষেধ করা হয়। উচিৎ কথা বলিলে, অন্যায়ের প্রতিবাদ করিলে বিভিন্ন ভাবে শাস্তি পাইতে হয়। আগে উচিৎ কথা বলিলে মানুষ পছন্দ করিতো, ভালো কাজের জন্য পুরষ্কার দেওয়া হইতো। কিন্তু এখন তাহা হয়না। এখন উল্টো তিরষ্কার করা হয়। এখন ঘর হোক কিংবা বাহির সব স্থানে একটা শিক্ষাই দেওয়া হয়ে থাকে, তাহা হলো ক্রমাগত তৈল মালিশ করা। বর্তমান সময়ে তৈল মালিশ করিতে না পারলে শুধু যে ব্যার্থই হইতে হইবে তা নয়, সমাজে আপনি অপছন্দের পাত্র হিসেবেও বিবেচিত হইবেন। সবাই আপনাকে নিন্দা করিবে। বর্তমানে কথিত সফল ব্যাক্তিগুলোর জীবনি ঘাটলে দেখা যায়, তাদের অধিকাংশই কোন ব্যাক্তি বা কোন গোষ্টিকে দিনের পর দিন তৈল মর্দন করিতে করিতে হাতের চামড়া পিচ্ছিল ও লাল হবার পর তাহারা কথিত সফলতা অর্জন করিয়াছেন। এহেন সফলতার জন্য তাহারা শুধু যে তৈল মর্দন করে তাহাই নয়। বরং তৈল মর্দন করিতে গিয়া তাহারা আরো যে কি কি নিকৃষ্ট কার্য সাধন করিয়া থাকে তাহা এখানে লিখা প্রায় অসম্ভব। তৈল মর্দন করিয়া হয়তবা ক্ষণিকের জন্য সফল হওয়া যায়, কিন্ত স্বার্থক হওয়া যায় কি?

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।