মাও. আবদুল মোস্তফা রাহিমের উপর হামলার প্রতিবাদে মুহাম্মদ রফিকুল ইসলাম নিন্দা জ্ঞাপন

১৬ মার্চ, ২০২০ : ১১:৫৫ অপরাহ্ণ ৪৩২

তেপান্তর রিপোর্ট: আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাআত বাংলাদেশ এর সাবেক যুগ্ম মহাসচিব আল্লামা বাকি বিল্লাহ জালালী (রহঃ) এর সাহেবজাদা বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনা ঢাকা মহানগরের সাবেক সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক তরুণ বক্তা মাওলানা আবদুল মোস্তফা রাহিম আল আযহারীর গত ১৫ মার্চ রবিবার চট্টগ্রামের কর্ণফুলীতে শান্তিপূর্ণ ভাবে হাজারো হাজার মুসল্লীর উপস্থিততে মাহফিল চলছিল। হঠাৎ এক সন্ত্রাসী-জঙ্গি তাকে হত্যার পরিকল্পনায় দেশীয় ধারালো অস্ত্র বডি দা নিয়ে তার উপরে অতর্কিত হামলা করে। হামলাকারীকে তৎক্ষনাৎ উপস্থিত মুসল্লীরা আটক করে আইনশৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনী পুলিশের কাছে সোপর্দ করে।

মাওলানা আবদুল মোস্তফা রাহিম আল আযহারীর উপর হামলার প্রতিবাদে তিব্র নিন্দা জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন বাংলাদেশ ইসলামী যুবসেনা কেন্দ্রীয় পরিষদের সদস্য ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ছাত্রসেনার সাবেক সফল সভাপতি যুবনেতা মুহাম্মদ রফিকুল ইসলাম। বিবৃতিতে তিনি মাওলানা আবদুল মোস্তফা রাহিম আল আযহারীর উপর হামলাকারীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়ে এই হালমার সাথে যারা জড়িত তাদেরকেও আইনের আওতায় আনার অনুরোধ জানিয়েছেন।

বিবৃতিতে তিনি আরও বলেন, সন্ত্রাসী-জঙ্গি গোষ্টি কখনো কোন ধর্মের বা গোত্রের হতে পারে না। তারা দেশ-জাতী ও ধর্মের শত্রু। বঙ্গবন্ধুর ১০০তম মুজিব বর্ষ উদযাপনের পাক কালে এ হামলা বড় ন্যাক্কার জনক। সন্ত্রাসী-জঙ্গিদের শাস্তির ব্যাপারে সরকারে নিরবতার কারণেই সসন্ত্রাসী-জঙ্গি প্রকাশ্যে জনবহুল মাহফিলে এমন হামলার দু:সাহস দেখাচ্ছে। এ হামলা আইনের প্রতি বৃদ্ধাঙ্গলি প্রদর্শনের শামিল। যে হারে বাতিল সম্প্রদায় কুরআন-হাদীসকে ভিন্নভাবে উপস্থাপন এবং অলি-আউলিয়া বিরোধী বক্তব্য দিয়ে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদকে উস্কে দিচ্ছে, সে হারে সরকার ও প্রশাসন সন্ত্রাসী-জঙ্গিদের উপর শাস্তির প্রয়োগ করছেনা। যদি সন্ত্রাসী-জঙ্গিদের উপর সরকার ও প্রশাসন কঠোর শাস্তির প্রয়োগ করত, তবে সন্ত্রাসী-জঙ্গিরা এমন হামলা করার পরিকল্পনা করতে পারতনা। তিনি সরকার ও প্রশাসনের কাছে সন্ত্রাসী-জঙ্গিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।