বিজয়নগরে সকাল-বিকাল হাট বাজারে প্রচুর লোক সমাগম

৫ এপ্রিল, ২০২০ : ৩:৪১ অপরাহ্ণ ৮৬৭

এস এম টিপু চৌধুরী: করোনা ভাইরাসে প্রার্দুভাবে পুরো দেশ যেখানে স্থবির, সরকারি ভাবে বিভিন্ন নির্দেশনা রয়েছে ঘরে থাকার জন্য। সেখানে সরকারের সকল নির্দেশনাকে উপেক্ষা করে বিজয়নগর উপজেলার বিভিন্ন হাট বাজারে লোকের সমাগমের কোন দিকেই কমতি নেই।

প্রশাসনের পক্ষ থেকে সচেতন হতে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করা হলেও তা মানছেন না কেউ। বিশেষ করে সকাল আর বিকাল হলেই হাট বাজার গুলোতে মানুষের ঢল নামে। যেন এসব এলাকায় ঈদের আমেজ চলতেছে।

উপজেলার বিভিন্ন হাট বাজার গুলোতে এমন দৃশ্য প্রতিদিনই পরিলক্ষিত হয়। প্রয়োজন ছাড়াও অনেকেই চা স্টল ও অন্যান্য স্থানে বসে আড্ডায় মত্ত থাকেন।

বাজার গুলোর মধ্যে আউলিয়া বাজার, চান্দুরা বাজার, হরষপুর বাজার, দেওয়ান বাজার,সিঙ্গারবিল বাজার, চম্পকনগর বাজার, আমতলী বাজার, কালিবাজার সহ রাস্তা ঘাটের বিভিন্ন মোড়ে দোকান গুলোতেও আড্ডা শেষ নেই।

হাট বাজার গুলো প্রশাসনিক ভাবে প্রতিদিন মনিটরিং করা হচ্ছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, প্রশাসনের পক্ষ থেকে যখন হাট বাজারে মনিটরিংয়ে আসেন। তখন মানুষ দোকান পাট বন্ধ করে পালিয়ে যায়। আবার যখনই প্রশাসনের লোকজন বাজার ছেড়ে চলে যায়। সঙ্গে সঙ্গে দোকান পাট খোলা হয়। আর মানুষ জড়ো হতে থাকেন।

সচেতন মহলের দাবি, প্রশাসনিক ভাবে মানুষের গণজমায়েতের বিষয়টি নিয়ে আরো কঠোর হওয়া দরকার। আর প্রয়োজনে প্রয়োজনীয় দোকান গুলো সকালে ৩ ঘন্টা আর বিকালে ২ ঘন্টা সময় বেঁধে দিয়ে মানুষের কেনাকাটার সুযোগ পাবে। আর এই নির্ধারিত সময়ের মধ্যে মানুষ প্রয়োজনীয় কেনাকাটা শেষ করে ঘরে ফিরে যাবে। এতে করে মানুষ অপ্রয়োজনে হাট বাজারে আসা বন্ধ হয়ে যাবে। তাই প্রশাসনের নিকট সচেতন মহলের দাবি, যেন হাট বাজারে মানুষের সমাগমের দিকটি গুরুত্ব দিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা এবং আরো কঠোর হয়ে জন সমাগমকে দূরতে করণে বিহীত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান।

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।