নবীনগরে প্রতিপক্ষের পা কেটে হাতে নিয়ে জয় বাংলা শ্লোগানে আনন্দ উল্লাস

১২ এপ্রিল, ২০২০ : ৪:৫৬ অপরাহ্ণ ২২১২৭

মোঃ সফর মিয়া,নবীনগর: করোনা ভাইরাসের লকডাউন ভেঙ্গে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার কৃষ্ণনগর ইউনিয়নের থানাকান্দি গ্রামে রবিবার সকালে বিবাদমান দুই পক্ষের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে অগ্নিসংযোগ,লুটপাট,বাড়ীঘর ভাংচুর, আহত অর্ধশত, আটক ৩০। সংঘর্ষ চলাকালে প্রতিপক্ষের একজনের পা কেটে হাতে নিয়ে অন্য পক্ষের লোকজনদেরকে জয় বাংলা শ্লোগান দিয়ে উল্লাস ও ‘আনন্দ মিছিল’ করতে দেখা গেছে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, এলাকায় গ্রাম্য আধিপত্য বিস্তার নিয়ে কৃষ্ণনগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জিল্লুর রহমান ও এলাকার সর্দার আবু কাউছার মোল্লার মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিলো। ওই বিরোধের জের ধরে দুই পক্ষের লোকজনের দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে এক রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে জড়িয়ে যায়। সংঘর্ষে উভয় পক্ষের প্রায় অর্ধশত লোক আহত হন। এ সময় একাধিক বাড়িতে অগ্নিসংযোগ ও লুটপাটের ঘটনাও ঘটে।

প্রতিপক্ষের পায়ের গোড়ালি কেটে হাতে নিয়ে আনন্দ মিছিল

থানাকান্দি গ্রামে দুই পক্ষের সংঘর্ষের পর মোবাইলে ধারণ করা একটি ভিডিও ফুটেজে দেখা যায় কাউছার মোল্লার পক্ষের লোকজন প্রতিপক্ষ চেয়ারম্যান জিল্লুর রহমানের পক্ষের মোবারক মিয়া (৪৫) নামের এক ব্যক্তির একটি পা কেটে হাতে নিয়ে গ্রামে জয় বাংলা শ্লোগান দিয়ে উল্লাস করছে। ওই মিছিলে পায়ের বদলে মাথা কেটে নিয়ে আসার কথা বলা হচ্ছিল। আবারও সংঘর্ষের আশংকায় এলাকায় বর্তমানে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে।।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (নবীনগর সার্কেল) মকবুল হোসেন বলেন, সংঘর্ষের ঘটনায় বিকেল পর্যন্ত ৩০ জনকে আটক করা হয়েছে। অভিযান অব্যাহত আছে। পরবর্তী যেকোন ঘটনা এড়াতে এবং পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে এলাকায় পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

  • 46.1K
    Shares