বিজয়নগরে প্রতিবন্ধী কৃষকের ধান কেটে ঘরে তুলে দিল ছাত্রলীগ সভাপতি এস এম মাহবুব।

১৮ এপ্রিল, ২০২০ : ৩:৫৬ অপরাহ্ণ ১৫৮৩

আসাদুজ্জামান আসাদঃ করোনায় লক ডাউনের কারণে ধান কাটার মজুর না পাওয়ায় বিপাকে আছে কৃষক। আর এসব কৃষকদের পাশে দাঁড়ানোর প্রত্যয় ব্যক্ত করেছিল ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ছাত্রলীগ। ধান কাটা নিয়ে বড় কষ্টে ছিলেন বিজয়নগর উপজেলার পাহাড়পুর ইউনিয়নের অসহায় প্রতিবন্ধী কৃষক মোক্তার। ধান কাটতে না পারায় চোখের সামনে বৃষ্টিতে ভিজে ভিজে ধান নষ্ট হয়ে যাচ্ছিল। দিন ৭০০ টাকা দিয়েও কৃষি শ্রমিক পাচ্ছিলেন না তিনি।

বিজয়নগর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি এস এম মাহবুব হোসাইন নিজে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের সাথে নিয়ে আজ ১৮ই এপ্রিল ( শনিবার) প্রতিবন্ধী এই কৃষকের ২কানি ক্ষেতের বোরো ধান কেটে ঘরে তুলে দিয়েছেন। তারা সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৩টা পর্যন্ত ধান কাটাসহ ধান ঘরে তোলার কাজ করেন। কৃষক মোক্তার মিয়া তেপান্তর কে বলেন,আমার এক হাত অচল হওয়ায় এমনিতেই নানা অসুবিধার সম্মুখিন হয়।অন্যরা নিজেদের ধান নিজেরা কাটতে পারলে ও আমি পারছিলাম না। বহু কষ্টে করা এই দুই কানি ক্ষেতের ধান কাটার লোক না পাওয়ায় চোখের সামনে নষ্ট হয়ে যাচ্ছিল ধান গুলা।গতকাল আমাদের উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মাহবুব হোসাইন আমাকে বলেন আপনি চিন্তা করবেন না।দেশরত্ন শেখ হাসিনা আমাদের দায়িত্ব দিয়েছে আপনাদের পাশে দাঁড়াতে।আমি কেটে দিব আপনার ধান।সেই কথা মত আজ ওনারা আমার দুই কানি ক্ষেতের ধান কেটে ঘরে তুলে দিয়েছেন ।আমি অনেক আনন্দিত।

উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মাহবুব হোসাইন তেপান্তর কে বলেন,ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ছাত্রলীগের ও পরে কেন্দ্রীয় কমিটির নির্দেশনার পরই আমরা বিজয়নগর ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা বিভিন্ন কৃষকের ধান কেটে সহযোগিতা করছি। যেসব কৃষক শ্রমিক সংকটের কারণে ধান মাঠ থেকে ঘরে তুলতে পারছেন না, আমরা যতটুকু সম্ভব সহযোগিতা করে ধান কেটে দিচ্ছি। গতকাল এই প্রতিবন্ধী কৃষকের অসুবিধার কথা জানতে পেরে নিজ উদ্যোগে সবাইকে নিয়ে তার ধান গুলা কেটে ঘরে তুলে দিলাম আজ। আজকে আমার সাথে পাহাড়পুর ইউনিয়নের সভাপতি, ছাত্রলীগের নেতাকর্মী ও সেচ্ছাসেবী হিসেবে অনেকেই ধান কাটায় অংশ গ্রহণ করেছে।সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাচ্ছি। তিনি আরো জানান,যতদিন করোনা থেকে মুক্তি পেয়ে দেশের পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে না আসছে ততদিন আমাদের বিজয়নগর ছাত্রলীগের সামাজিক কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।