নবীনগরে যৌতুকের দাবীতে গৃহবধূকে নির্যাতনের অভিযোগ

৬ মে, ২০২০ : ১:৩৭ অপরাহ্ণ ৭৩৫

মোঃ সফর মিয়া: নবীনগরে যৌতুকের দাবিতে স্বামী ও তার পরিবারের সদস্যদের দ্বারা নির্যাতনের শিকার হয়েছেন এক গৃহবধূ।

জানা যায় বিগত ২ বছর পূর্বে নবীনগর উপজেলার পশ্চিম ইউনিয়নের নরসিংহপুর গ্রামের মো. মজিবুর রহমানের মেয়ে নাইমা আক্তারের সঙ্গে উপজেলার শ্যামগ্রাম ইউনিয়নের নাসিরাবাদ গ্রামের সামছু মিয়ার ছেলে মিঠু খানের পারিবারিক ভাবে বিয়ে হয়।

বিয়ের পর নাইমার কোল জুড়ে এক কন্যা সন্তান আসে। যার বয়স ৪ মাস। এই শিশু বাচ্চাটিকেও তারা আদর যত্ন বা প্রয়োজনীয় ঔষধপত্র কিছুই দিতো না।

বিয়ের পর থেকেই যৌতুকের জন্য স্বামী মিঠু খান ও তার পরিবারের লোকজনের হাতে শারিরীক ভাবে নির্যাতনের শিকার হতে থাকে নাইমা আক্তার। এক পর্যায়ে গত পহেলা মে স্বামীসহ শ্বশুর বাড়ির লোকজনের অমানুষিক নির্যাতনে গুরুতর আহত হয়ে পড়ে নাইমা। গুরুতর আহত নাইমাকে তারা চিকিৎসা না করিয়ে উপরন্তু ঘরে আটকিয়ে রাখে।

খবর পেয়ে নাইমা আক্তারের পরিবারের লোকজন পুলিশের সহায়তায় তাকে উদ্ধার করে বাবার বাড়িতে নিয়ে আসে। এবং তাৎক্ষণিক তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়।

এ বিষয়ে নবীনগর থানার ওসি রনোজিত রায় জানান, নারী নির্যাতনের মামলা আদালতের মাধ্যমে হয়ে থাকে। তবে আমাদের কাছে যেহেতু লিখিত অভিযোগ দিয়েছে আমরা তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।