জেলা আওয়ামীলীগ নেতা মোঃ শাহআলমের বিষয়টি তদন্তের জন্য ডিসিকে এমপি মোক্তাদির চৌধুরীর অনুরোধ

১৩ মে, ২০২০ : ২:২৯ পূর্বাহ্ণ ১৭৮১

আসাদুজ্জামান আসাদঃ গত ৯ই মে দৈনিক মানব জমিন এ প্রকাশিত ‘ওএমএস তালিকায় ডিলারের স্ত্রী-সন্তান,শ্যালকের নাম রয়েছে ৫তলা বিল্ডিং এর মালিকও’ নিউজটিতে উল্লেখিত ডিলার ব্রাহ্মণনাড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগের শিল্প ও বানিজ্য সম্পাদক। নিউজটি ব্যপকভাবে আলোড়ন ছড়িয়েছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সহ সারা বাংলাদেশে।পরে তেপান্তর সহ বিভিন্ন জাতীয় পত্রিকা নিউজটি করে। সবাই এই ঘটনার নিন্দা জানিয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেইসবুকে সহ বিভিন্ন মাধ্যমে।

গত ১১ই মে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার ফেইসবুক ভিত্তিক অনলাইন গ্রুপ উইশ ফর বেটার ব্রাহ্মণবাড়িয়া গ্রুপে এই নিউজটি শেয়ার হলে তা ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি, ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর ও বিজয়নগর-০৩ আসন এর সংসদ সদস্য র আ ম উবায়দুল মোক্তাদির চৌধুরীর নজরে আসে। ওই পোষ্টের কমেন্টে তিনি জানান ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ডিসি কে এই বিষয়টি তদন্ত করার জন্য অনুরোধ করেছি ।উনার কমেন্ট টি হুবহু তুলে ধরা হল-

“I requested DC to make an inquiry. If he is found guilty through a neutral investigation, organisational step will b taken against him.”

“আমি ডিসিকে তদন্তের জন্য অনুরোধ করেছি। যদি তাকে নিরপেক্ষ তদন্তের মাধ্যমে দোষী সাব্যস্ত করা হয় তবে তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক পদক্ষেপ নেওয়া হবে।”

উনার এই সিদ্ধান্তের ভূয়সী প্রশংসা করছেন সবাই।

দৈনিক মানব জমিনে করা নিউজের একাংশ তুলে ধরা হল- ১০ নম্বর ওয়ার্ডের ওএমএস ডিলার মো: শাহআলমের পরিবার ও স্বজনদের কারো নামই বাদ নেই। তিনি জেলা আওয়ামীলীগের শিল্প ও বানিজ্য সম্পাদক । ভোক্তা তালিকার ১৬ নম্বরে রয়েছে তার স্ত্রী মোছাম্মৎ মমতাজ আলমের নাম। ১২ নম্বরে মেয়ে আফরোজার নাম। তার তিন ভাইবোন মো: সেলিম,মো: আলমগীর ও শামসুন্নাহারের নাম রয়েছে ৮,৯ ও ২৭ নম্বর ক্রমিকে। আরেক ভাই খোরশেদ মিয়ার ছেলে নাছিরের নাম রয়েছে ৭ নম্বরে। নাছির প্রবাসী। ৩ নম্বরে রয়েছে শ্যালক মো: তাজুল ইসলামের নাম। শ্যালকের স্ত্রী আসমা ইসলামের নাম ৫ নম্বরে। আরেক শ্যালকের স্ত্রী মোছাম্মৎ জান্নাতুল ইসলামের নাম রয়েছে ১০ নম্বরে। বোনের তিন দেবর মতিউর রহমান,মাহবুবুর রহমান,লুৎফুর রহমানের  নাম রয়েছে ৭২,৭৩ ও ৭৪ নম্বর ক্রমিকে। আরেক শ্যালক প্রবাসী শফিকুল ইসলামের নামও রয়েছে তালিকার ১৩ নম্বরে।

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।