দুর্ঘটনা ও ঘুড়ি উড়ানোর প্রতিযোগিতাকে কেন্দ্র করে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ঘুড়ি উড়ানো নিষিদ্ধ করল জেলা প্রশাসন

১৯ মে, ২০২০ : ১:১৯ পূর্বাহ্ণ ৯০৬

আসাদুজ্জামান আসাদঃ ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলওয়ে ওভারব্রীজ এ ঘুড়ির সুতায় বাইক চালক ও রিস্কাচালক একের পর এক দুর্ঘটনার শিকার হওয়ায় এবং আসন্ন ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ঘুড়ি উড়ানোর প্রতিযোগিতার আয়োজনের কারনে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সকল ধরণের ঘুড়ি উড়ানো নিষিদ্ধ করেছে জেলা প্রশাসন। আজ ১৮ই মে (সোমবার) জেলা প্রশাসন এক গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশের মাধ্যমে এই নিষেধাজ্ঞা জারি করে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট হায়াৎ উদ-দৌলা খাঁন স্বাক্ষরিত ওই গণ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, সম্প্রতি ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার অনেক স্থানে ব্যাপকহারে ঘুড়ি ওড়ানোর প্রবণতা দেখা যাচ্ছে। ফলে, ছিঁড়ে যাওয়া সুতাসহ ঘুড়ি পাশের রাস্তা ও অন্যান্য জায়গায় পড়ে যাওয়ায় মানুষ আহত হওয়া সহ একাধিক  দুর্ঘটনা ঘটেছে। এছাড়াও ঈদ-উল-ফিতরকে সামনে রেখে কিছু স্থানে ঘুড়ি ওড়ানোর প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হচ্ছে বলে জানা গেছে। অতীতে এ ধরণের প্রতিযোগিতাকে কেন্দ্র করে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি অবনতি ঘটেছিল। তাই ঘুড়ি ওড়ানো প্রতিযোগিতাও নিষিদ্ধ করা হলো।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা প্রশাসক হায়াৎ উদ-দৌলা খাঁন বলেন, ‘জনস্বার্থে এ আদেশ জারি করা হয়েছে। আদেশ অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

উল্লেখ্য গত ২ই মে তেপান্তর এ প্রথম প্রকাশিত সংবাদ”ঘুড়ির সুতায় গাল কেটে ২১৩ সেলাই,২জন আহত ”

দ্বিতীয় নিউজ হয় ১১ই মে”ঘুড়ির সুতা বেঁধে মরণ ফাঁদ পেতে অভিনব কায়দায় চলছে ছিনতাই” যেই নিউজের বক্তব্যে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর থানার ওসি সেলিম উদ্দিন বলেছিলেন “তেপান্তর এর কাছ থেকেই তিনি প্রথম এই সংবাদ শুনেছেন”

গত ১৬ই মে “ঘুড়ির সুতায় গলা কেটে আবারো যুবক আহত;মৃত্যু ফাঁদ ব্রাহ্মণবাড়িয়া ওভারব্রিজ” সর্বশেষ নিউজের পর আজ প্রশাসনের এই গনবিজ্ঞপ্তি জারি হয়।

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।