ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ভোর রাত থেকেই ঈদ শপিং এর বিরুদ্ধে চলছে অভিযান

২২ মে, ২০২০ : ১:১১ অপরাহ্ণ ১৮৯৭

আসাদুজ্জামান আসাদঃ গতকাল জেলা প্রশাসক হায়াত-ঊদ-দৌলা খান এক গন-বিজ্ঞপ্তি জারি করেন।যাতে বলা  হয়  পরবর্তি নির্দেশনা না দেয়া পর্যন্ত আজ ২২ মে শুক্রবার সকাল ৬টা  থেকে  ব্রাহ্মনবাড়িয়া জেলার সব ধরনের শপিং-মল, বিপনি বিতান অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ থাকবে।

AL MADINA IT ad

এর প্রেক্ষিতে  আজ ভোর রাত থেকে শহরের বিভিন্ন মোড়ে মোড়ে এবং শপিংমল এর সামনে পুলিশ ও মেজিষ্ট্রেট এর কড়া নজরদারী লক্ষ্য করা গেছে।

উল্লেখ্য যে,করোনা পরিস্তিতিতেও ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের কথা ভেবে গত ১০ই মে সরকার সব শপিংমল খোলে দিয়েছিল।কিন্তু ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় জেলা প্রশাসকের নির্দেশ এর সাথে সহমত পোষণ করে ব্যবসায়ী ও মার্কেট কমিটির সবাই জানিয়েছিল যে এই ঈদে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় কোন মার্কেট খোলা হবে না।কিন্তু কিছু অসাধু ব্যবসায়ী তা না মেনে ব্যবসায় চালিয়ে যাচ্ছিল।  সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত হকার মার্কেট,নিউ মার্কেট, সিটি সেন্টার, এফ এ টাওয়ার, বি.বাড়িয়া টাওয়ার,আশিক প্লাজা,সমবায় মার্কেট,মসজিদ রোড সহ প্রায় প্রতিটি বাজারেই কেনা কাটার উপছেপড়া ভিড় থাকত। প্রতিটি কসমেটিক্স, কাপড়ের দোকানসহ অধিকাংশ বিপণী বিতানের সামনে দাঁড়াতেই দোকানের ভিতর থেকে আওয়াজ আসছে ‘আইয়ে রে আইয়ে রে’ পুলিশ, সেনাবাহিনী। আর সঙ্গে সঙ্গেই সব দোকানের শাটার নামতে শুরু করে। মুহূর্তেই সব দোকান বন্ধ করে দোকানের ভেতরেই চুপিসারে অবস্থান করে ক্রেতা ও বিক্রেতারা।ব্যবসায়ী এবং পুলিশের মাঝে সারাদিন চলত চুর-পুলিশ খেলা। তাছাড়াও  শহরের  রিস্কার জ্যাম আর তাতে উপস্থিত মানুষের হাতে শপিং ব্যাগ দেখেই বুঝা যেত ঈদ শপিং বাদ দিচ্ছেন না তারা।

এই পরিস্থিতি থেকে উত্তরনের জন্য জেলা প্রশাসক এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে জানিয়েছে জেলা প্রশাসন। জেলা প্রশাসকের এই উদ্যোগ এর ভূয়সী প্রশংসা করেছেন সচেতন সমাজ।

  • 9.2K
    Shares
ZamZam Graphics