আবাসিক গ্যাস সংযোগ এর অনুমোদন,তিতাস গ্যাসের জোনাল অফিসে সক্রিয় প্রতারক চক্র

২ জুলাই, ২০২০ : ২:১১ অপরাহ্ণ ৯৩৫

আসাদুজ্জামান আসাদঃ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জ্বালানি বিভাগের আবাসিক গ্যাস সংযোগ এর প্রস্তাবে অনুমোদন দিয়েছেন।তাই নতুন করে আবাসিক গ্যাস সংযোগ চালু হতে যাচ্ছে শিগগিরই।
দ্রুততম সময়ের মধ্যেই জ্বালানি বিভাগ সংযোগের নীতিমালা চূড়ান্ত করে গ্যাস বিতরণ কোম্পানিগুলোকে জানিয়ে দেবে। জ্বালানি মন্ত্রণালয় এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

বিভিন্ন সূত্র থেকে জানা যায়, আবার আবাসিক গ্যাস সংযোগ চালু হতে পারে এমন খবরে তিতাস গ্যাস বিতরণ কোম্পানির ব্রাহ্মণবাড়িয়া অফিস সহ বিভিন্ন জোনাল অফিসগুলোয় প্রতারকচক্র সক্রিয় হয়ে ওঠেছে। অফিস আনাগোনা বেড়েছে বিভিন্ন শ্রেণির ঠিকাদারের। ইতোমধ্যে এসব ঠিকাদার গ্রাহকদের কাছ থেকে অর্থ জমা নেওয়া শুরু করেছেন।

এ ব্যাপারে তিতাস গ্যাস বিতরণ কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক আলী মো. আল মামুন বলেন, নতুন করে আবাসিক গ্যাস সংযোগের কোনো নির্দেশনা আমাদের কাছে আসেনি। মন্ত্রণালয় থেকে এমন নির্দেশনা এলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেব। জোনাল অফিসগুলোয় ঠিকাদার এবং এক শ্রেণির প্রতারক ইতোমধ্যে গ্রাহকের কাছ থেকে অর্থ নেওয়ার বিষয়টি অবহিত করলে তিনি বলেন, আমি গ্রাহকদের কাছে অনুরোধ করব- না বুঝে এবং সরকারের সুনির্দিষ্ট নির্দেশনা না পেয়ে কেউ যেন টাকাপয়সা না দেয়। ২০১০ সালের পর থেকে সরকার অবাধ গ্যাস সংযোগ প্রদানে লাগাম টেনে ধরে।
বিভিন্ন সময়ে শিল্প বাণিজ্যিক এবং আবাসিক গ্যাস সংযোগ বন্ধ করে রাখে। মাঝখানে শর্তসাপেক্ষে গ্যাস সংযোগ চালু করলেও রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে ২০১৪ সাল থেকে আবাসিক গ্যাস সংযোগ পুরোপুরি বন্ধ রয়েছে। নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়ে নতুন করে সরকার গ্যাস সংযোগের সিদ্ধান্ত নিলে দীর্ঘ ছয় বছর পর আবাসিক গ্যাস সংযোগ চালু হবে। দেশজুড়ে লাখ লাখ গ্রাহক নতুন সংযোগ, চুলা বৃদ্ধির অপেক্ষায় আছে। গ্রাহকদের গ্যাসের চাহিদাকে পুঁজি করে বিভিন্ন গ্যাস বিতরণ কোম্পানির অসাধু কিছু কর্মকর্তা এবং ঠিকাদার লাখ লাখ অবৈধ গ্যাসের সংযোগ দিয়েছে ইতোমধ্যে। সরকার এসব অবৈধ গ্যাস সংযোগের বিরুদ্ধে কার্যকর কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারেনি। আবার নতুন করে বৈধ সংযোগ দেওয়ার পথও বন্ধ করে রাখায় গ্যাস পুড়লেও রাজস্ব হারাচ্ছে সরকার। ফলে বিতরণ কোম্পানিগুলো থেকে কয়েক দফা মন্ত্রণালয় ও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে সুপারিশ গেছে আবাসিক গ্যাস সংযোগ চালু করার।

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

  • 1K
    Shares