হোমনায় প্লাস্টিক বোতল দিয়ে দৃষ্টিনন্দন বাড়ি, দেখতে মানুষের ভিড়

২৫ অক্টোবর, ২০১৯ : ১০:৩১ পূর্বাহ্ণ ৪৩৯

সোনিয়া আফরিন: উপজেলা সদর থেকে প্রায় সাড়ে তিন কিঃমি দুরে পৌরসভার ৯ নং ওয়ার্ড প্রতন্ত এক গ্রাম লটিয়া,চারিদিকে সবুজ বেষ্টনীতে ঘেরা, আর সেখানেই পরিত্যক্ত প্লাস্টিক বোতল দিয়ে পরিবেশ সম্মত এক বাড়ি নির্মান করলেন তরুন উদ্যেক্তা মোঃ শফিকুল ইসলাম,তিনি আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর চাকরিতে নিয়োজিত আছেন,বর্তমান কর্মস্থল রাজারবাগ পুলিশ লাইন।তিনি অনেকটাই স্বভাব সুলভ ও শান্তশিষ্ট নিরিবিলি প্রকৃতির মানুষ, সৌখিন ভ্রমনপিপাসী ও বইপ্রেমিক। পাশাপাশি তিনি সেবামূল্যক কাজে নিজেকে ব্যস্ত রাখতে পছন্দ করেন। তিনি জানান ২০১১সালে সূর্যদ্বয়ের দেশে জাপানে একটি তিনতলা বিল্ডিংয়ের একটি খবর বাংলাদেশের জাতীয় পত্রিকায় দেখতে পায়,এবং তিনি নিজেই ভাবতে থাকেন পরিবেশের আনাচে কানচে পড়ে থাকা প্লাস্টিক বোতলগুলো কিভাবে কাজে লাগানো যায়, আমাদের পরিবেশটা কিভাবে দুষনমুক্ত রাখা যায়,আর সেখান থেকেই তিনি ভাবতে থাকেন কিভাবে বোতল দিয়ে বাড়ি নির্মান করা যায়, জানা ছিলনা তার কলাকৌশল,পরে তিনি বিভিন্ন ইউটাব চ্যানেল ঘেটে বিদেশের বিভিন্ন জায়গার বোতল বাড়ি তৈরির নির্মান পদ্বতি দেখেন,তিনি কোনরকম ইন্জিনিয়ারের পরামর্শ ছাড়াই বাড়ির কাজ শুরু করেন,তিনি জানান পৌরসভা ইন্জিনিয়ার ও উপজেলা ইন্জিনিয়ারের কাছে গেলেও তারা তাকে কোন পরামর্শ দিতে পারেন নাই,অবশেষে তিনি নিজে নিজেই শুরু করলেন বাড়ির কাজ সফল হলেন।তিনি জানান তার এই বাড়ি নির্মানে ইটের চেয়ে অনেকটাই সাশ্রয়ী হবে, তিনি জানান তার এই বাড়ি নির্মানে প্রায় ৮০ হাজার বোতল ঢাকা,দাউদকান্দি,তিতাস,হোমনার বিভিন দোকান থেকে ক্রয় করেন। শফিকুল ইসলাম বলেন, তার এই বাড়িটি পরিবেশ সম্মত, তিনি বলেন বোতলের বাড়িতে আগুন লাগলেও তা নির্দিষ্ট স্থানেই থাকবে ছড়িয়ে পড়বে না,বিদ্যুৎ শটসার্কিস হবে না,গরমের দিন ঠান্ডা আর ঠান্ডার দিন গরম, ও এবং কিছুটা ভুমিকম্প সহনশীল হবে বলেও তিনি দাবি করেন। কোন কিছুই যে খেলনা বা ফেলনা নয়, তারই প্রমান করলেন তিনি,তার এই বাড়িটি এক নজর দেখতে প্রতিদিনই দুরদুরান্ত থেকে লোকজন আসছে,কেউবা বাড়ি নির্মানের পরামর্শ নিচ্ছে, কেউ হাত ছোয়ে দেখছে, কেউবা ছবি ও সেলফি তুলায় ব্যস্ত হচ্ছে।তিনি জানান তার এই বাড়ি দেখতে লোকজন আসায় নিজেকে আন্দদিত ও গর্ববোধ করেন।এবং মনে করেন তার দেখাদেখি যেন আরো বাড়ি নির্মান করা হয়।

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।