নবীনগরে সাংবাদিকের বিরুদ্ধে ১০ লাখ টাকা চাঁদা দাবীর অভিযোগ

৩০ জুলাই, ২০২০ : ৩:৩৮ অপরাহ্ণ ২৯৭

মো. সফর মিয়া: ব্রা‏হ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার কালের কন্ঠের প্রতিনিধি গৌরাঙ্গ দেবনাথের বিরুদ্ধে ১০ লাখ টাকা চাঁদা দাবীর অভিযোগ পাওয়া গেছে। বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ নবীনগর শাখার সাধারণ সম্পাদক ও কালি বাড়ী পরিচালনা পরিষদের সভাপতি সীতানাথ সুত্রধর নবীনগর থানায় লিখিত অভিযোগ করেন। অভিযোগের অনুলিপি নবীনগর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, পৌর মেয়র এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বরাবরেও দেয়া হয়। অভিযোগ শেষে গত বুধবার সন্ধ্যায় শ্রী শ্রী কালিবাড়ি প্রাঙ্গনে সীতানাথ সূত্রধর এক সংবাদ সম্মেলন করে ওই সাংবাদিকের বিরুদ্ধে চাঁদা দাবীসহ কালের কন্ঠ পত্রিকায় তার বিরুদ্ধে করা সংবাদের প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, সাংবাদিক গৌরাঙ্গ দেবনাথসহ কয়েকজন নবীনগর কালিবাড়ির পরিচালনা পরিষদের সভাপতি সীতানাথ সূত্রধরের বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভিন্ন কু-রুচি পূর্ণ ও মিথ্যা স্ট্যাটাস প্রচার করে। সম্প্রতি বাংলাদেশ হিন্দু, বৌদ্ধ, খৃষ্টান ঐক্য পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির নির্দেশনা অনুযায়ী নবীনগর শাখার সাধারণ সম্পাদক সীতানাথ সূত্রধর ২১০ জনের নামের একটি খসড়া তালিকা করেন। যা জেলা কমিটির মাধ্যমে কেন্দ্রীয় কমিটির কাছে হস্তান্তর করা হয়।

খসড়ায় ওই নামের তালিকায় জাল স্বাক্ষর ও অনিয়মের অভিযোগ এনে সাংবাদিক গৌরঙ্গ দেবনাথ কালের কণ্ঠ পত্রিকায় গত ২২ জুলাই একটি সংবাদ প্রকাশ করে। সংবাদ প্রকাশের প্রাক্কালে সীতানাথ সূত্রধরের কাছে এই বিষয়ে জানতে চেয়ে সাংবাদিক গৌরাঙ্গ দেবনাথ ১০ লাখ টাকা চাঁদা দাবী করেছেন বলে সংবাদ সম্মেলনে উল্লেখ করেন সীতানাথ সূত্রধর।

অভিযোগে সূত্রে আরো জানা যায়, গত ২১ ও ২২ জুলাই সীতানাথ সূত্রধরের ছেলে সুভাষ চন্দ্র সুত্রধরের কাছে বিভিন্ন মোবাইল নাম্বার (০১৬৮৭৬৩১৯৩৮,০১৮৪৬৬৭০৭০৪,০১৭১১৪৪৫৭৯১) থেকে ফোন করে ১০ (দশ) লাখ টাকা চাঁদা দাবী করে গৌরাঙ্গ দেবনাথ। ওই টাকা না দিলে তাদের বিরুদ্ধে আরো মিথ্যা অপপ্রচার চালাবে বলে হুমকি প্রদান করে।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত সাংবাদিক গৌরাঙ্গ দেবনাথ চাঁদাবাজির অভিযোগটি সম্পূর্ণ মিথ্যা ভিত্তিহীন দাবী করেন।

এ ব্যাপারে নবীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) রুহুল আমীন বলেন, অভিযোগ আমারা পেয়েছি, বিষয়টি তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

  • 67
    Shares