খাদিজা নিখোজ: রক্ত ও চুল কার?

৩ আগস্ট, ২০২০ : ৮:৩৯ অপরাহ্ণ ৬৩২

তেপান্তর রিপোর্ট: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জের শরীফ পুর গ্রামে খাদিজা (৩০) নামে তিন সন্তানের জননী নিখোজ হয়েছেন।সোমবার শেষ রাতে তিনি নিখোজ হয়েছেন বলে জানা গেছে। খাদিজা শরীফপুরের নদীর পাড়ের সোহেল মিয়ার স্ত্রী। কিন্তু এই ঘটনার পর সোমবার সকালে পুলিশ ওই বাড়ি তল্লাশী করে কিছু চুল ও রক্ত পেয়েছে। এগুলো পুলিশ আলামত হিসেবে সংগ্রহ করেছে। এই ঘটনায় তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ।এরা হলেন, খাদিজার স্বামী সোহেল, শ্বশুর হুমায়ুন কবীর এবং শ্বাশুরী হেলেনা বেগম। আশুগঞ্জ থানা পুলিশ তাদের আটক করে। হত্যার ইঙ্গিত করে এমন আলামত থাকা ও সন্দেহভাজনরা আটক থাকা সত্বেও পুলিশ এখনো এর কোন ক্লু বের করতে পারছে না।

খাদিজার বাবার বাড়ি সদর উপজেলার চিলিকূট গ্রামে। রোববার খাদিজা তার স্বামীসহ বাবার বাড়িতে বেড়িয়ে স্বামীর বাড়ি ফেরার একদিন পর তিনি নিখোজ হোন।

এই ঘটনার পর শরীফপুর ও তার আশেপাশের গ্রামে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। ঘটনার পর পরই ওই বাড়িতে শত শত লোক ভীর করে। এটি খুন নাকি নিখোজ এনিয়ে এলাকায় আলোচনা-সমোলোচনার ঝড় উঠেছে। অনেকে এটাকে সহস্যজনক ঘটনা হিসেবেও উল্ল্যেখ করছেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এলাকাবাসী অনেকেই বলছেন,যেহেতু রক্ত ও চুল পাওয়া গেছে তাই ধারণা করা হচ্ছে খাদিজাকে হত্যা করা হয়ে থাকতে পারে। তা না হলে এই রক্ত ও চুল কার? প্রশ্ন এলাকাবাসীর।

এদিকে শরীফপুরের মোহন মেম্বার অভিযুক্তদের আত্নীয় হ্ওয়ায় পক্ষ নেওয়ার অভিযোগ করেছেন খাদিজর পরিবারের লোকজন।  খাদিজার চাচাত ভাই জসিম উদ্দিন বলেছেন, মোহন মেম্বার খাদিজার স্বামীর আত্নীয় (চাচা) হওয়ায় তিনি অন্যায় ভাবে উল্টো আমাদরকেই হুমকি-ধামকি দিচ্ছে। মেম্বার হওয়ার সুবাধে তিনি বিভিন্ন মহলকে ম্যানেজ করারও চেষ্টা চালাচ্ছেন।

এবিষয়ে মোহন মেম্বার তেপান্তরকে বলেন, আমি কাউকে হমকি-ধামকি দেইনি। বরং মেয়ের বাড়ির লোকেরাই আমার উপর চড়াও হয়েছে।

এ বিষয়ে সরাইল সার্কেলের সিনিয়র এএসপি মোহাম্মদ আনিসুর রহমান বলেন,খাদিজ নিখোজ না খুন হয়েছেন তা তদন্ত না করে বলা যাচ্ছে না।তবে আমরা কিছু আলামত পেয়েছি ।এ আলামতের ভিত্তিতে তদন্ত চলছে। আমি আশা করছি দ্রুত এ ঘটনার রহস্যের জট খুলতে পারব এবং যারা এঘটনার সাথে জড়িত তাদের আইনের আনা হবে।

 

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

  • 104
    Shares