”করোনা দি অহন আর ডর লাগে না”: সামাজিক দূরত্ত্ব মানছেন না ব্রাহ্মণবাড়িয়াবাসী

৭ আগস্ট, ২০২০ : ৮:০৮ অপরাহ্ণ ৭৫৩

আসাদুজ্জামান আসাদ: শুক্রবার  (৭ আগষ্ট ) ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অবকাশ, আবি রিভার পার্ক,রসুলপুর,গাওঁ গেরাম সহ বেশ কয়েকটি পর্যটনস্থান ঘুরে দেখা  যায়, করোনা থেকে রক্ষায় নিরাপদ শারীরিক দূরত্ব মানছেন না কেউ।

করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি এড়াতে শারীরিকভাবে একে অন্যের তিন ফুট দূরত্বে অবস্থান করতে বলা হলেও সেটা মানছে না কেউই । তবে ঘুরতে এসে অনেকে চেষ্টা করেও ব্যর্থ হচ্ছেন নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখতে।

রসুলপুরে পরিবার নিয়ে ঘুরতে এসেছেন পৌর এলাকার ফয়সাল মাহমুদ তিনি তেপান্তর কে বলেন,ঈদে বের হতে পারি নাই বিভিন্ন কাজে ব্যস্ত থাকায়।তাই আজ এসেছি কিন্তু নিরাপদ দূরত্ব কেউ মানছেন না। গায়ে গা ঘেঁষে হাটছে সবাই। একটু সরতে বললে আড়চোখে তাকাচ্ছেন এতে করে নিজেই বিব্রত হচ্ছি। কেউ কেউ বলছেন এতোই যেহেতু ভয় তাহলে ঘুরতে না আসলেই হয়।

ঘুরতে আসা হিমেল আহমেদের মুখে মাস্ক নেই কেন জানতে চাইলে তিনি বলেন,”করোনা দি অহন আর ডর লাগে না”এই জন্যই এখন আর মাস্ক পড়তে মনে চাই না।

নৌকা নিয়ে ঘুরতে আস ২৫-৩০জনের একটি দলের কারো মুখেই নেই মাস্ক, অনেকের গায়ে নেই কাপড়ও।জানতে চাইলে রানা নামের এক তরুন বলেন,আমরা ঈদ আনন্দ ভ্রমণে এসেছি তাই করোনার ভয় নাই।

রাস্তার পাশে ঝটলা বেধেঁ চলছে নাচ-গান

এদিকে সেখানে থাকা রেস্টুরেন্টে কেউ সরকারি নির্দেশনা মানছেন না। ক্রেতা পেয়েই খুশি তারা। ক্রেতাদের ভিড়ে করোনা প্রতিরোধে করণীয় সম্পর্কে এড়িয়ে যাচ্ছেন তারা।

পৌর এলাকার অবকাশ গিয়ে দেখা যায়, মানুষের ভিড় মোটামুটি। চটপটির দোকানগুলা সহ সবখানেই মানুষের  সমাগম। অনেকের মুখে মাস্ক থাকলেও একে অপরের সঙ্গে কোনো দূরত্ব মানছেন না।

আজকে অবকাশের চিত্র

এদিকে পৌরসভার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, মূল সড়কগুলো জনশূন্য থাকলেও বিভিন্ন এলাকায় অলিগলিতে বিভিন্ন বয়সী লোকের আড্ডা। বিশেষ করে মহল্লার টি স্টলগুলোতে তরুণ ও কিশোরদের আড্ডা দেখে মনে হয়েছে তাদের মধ্যে করোনার কোনো ভয় বা আতঙ্ক নেই। নিয়ম রক্ষায় মাস্ক অনেকে গলায় ঝুলিয়ে করছে ধূমপান। সামাজিক দূরত্ব বলতে কিছুই মানছে না তারা।

ভ্রাম্যমান আদালতকে  দেখা যায় জরিমানা করছে পৈরতলা রেল ক্রসিং এর পাশে।

ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনাকারী এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট  আব্দুল্লাহ আল বাকী জানান,ঈদ উপলক্ষে রসুলপুর মানুষের উপস্থিতি অনেক বেশী বেড়ে যাওয়ায়, ঈদের ৩দিন থেকেই এখানে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হচ্ছে মানুষের মাস্ক পড়া বাধ্যতামূলক করতে এবং সামাজিক দূরত্ত্ব নিশ্চিত করতে। আজ ঈদের ৮ম দিলে হলেও মানুষের উপস্থিতি অনেক।যাদের মুখে মাস্ক নেই এবং যারা সামাজিক দূরত্ত্ব মানছেন না তাদের সচেতন করতে জরিমানা করা হচ্ছে।

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।