নাসিরনগরে একটি  হাঁস চুরির ঘটনায় দু’দলের মারামারি ভাংচুর ও লুটপাট, আহত ১০

৮ আগস্ট, ২০২০ : ১০:৪৭ পূর্বাহ্ণ ৮১৭

আসাদুজ্জামান আসাদঃ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর উপজেলায় একটি হাঁস চুরিকে কেন্দ্র করে দু’দলের মারামারি সহ বাড়িঘর ভাংচুর ও লুটপাট এর অভিযোগ উঠেছে।

গতকাল (৭ই জুলাই) শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে কুন্ডা ইউনিয়নের মছলন্দপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় প্রতিপক্ষের হামলায় আমেনা খাতুন(৬৫), রজব আলী(৭৫), জিল্লু মিয়া(৩২), তামিম(০৮), রবিনা খাতুন(২০), ফারজানা(১৯), নেহেরা খাতুন(২২), পুতুল(১৭), মুলেদা খাতুন(৩০), হেলেনা বেগম(৩৫), ও পারভীন(৩৫) আহত হয়েছেন।গুরুতর আহত আমেনা খাতুন, রজব আলী, জিল্লু মিয়া ও তামিমকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী স্থানীয়রা ও জিল্লু মিয়া জানান, মছলন্দপুর গ্রামের সড়কপাড়ার রজব আলীর হাঁস একই গ্রামের দক্ষিনপাড়ার হোসেন মিয়ার ঘরে গেলে তারা আটকিয়ে রাখে। রজব আলোর স্ত্রী আমেনা খাতুন তাদের হাঁস চুরির প্রতিবাদ জানাতে গেলে,তার সাথে কথা-কাটাকাটির জের ধরে ওই গ্রামের দু’দলের লোকজন দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন।উভয়পক্ষের লোকেরা সংঘর্ষের জেরে বাড়িঘর ভাংচুর ও লুটপাটে জড়িয়ে পড়েন৷

নাসিরনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আরিসুল ইসলাম বলেন, একটি হাঁসকে কেন্দ্র করে মারামারিতে হতাহতের বিষয়ের নিশ্চিত হয়েছে। সংবাদ পেয়ে আমি হাসপাতাল ও ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত আছে।

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।