Tepantor

আবৃত্তি শিল্পী ও শিক্ষক “বাসির দুলাল” যখন করোনা সুরক্ষা সামগ্রী বিক্রেতা

১৫ আগস্ট, ২০২০ : ১১:১৮ পূর্বাহ্ণ ৮২৭

সীমান্ত খোকন: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার স্বনামধন্য আবৃত্তি শিল্পী ও উইজডম স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষক বাসির দুলাল এখন করোনার সুরক্ষা সামগ্রী বিক্রেতা হিসেবে কাজ করছেন। মহামারি করোনার থাবায় যখন পুড়ো বিশ্ব অচল হয়ে পড়েছে তখন জীবনের তাগিদে অনেকেই ব্যতিক্রম কিছু করছেন। “জীবনতো আর থেমে থাকার নয়” এমন মনোভাব থেকেই শিক্ষক ও আবৃত্তি শিল্পী বাসির দুলাল ব্যবসা শুরু করেছেন করোনার সুরক্ষা সামগ্রী বিক্রির। এতে করে নিজেকে যেমন বেকার বসে থাকতে হচ্ছেনা অন্যদিকে খাটি সুরক্ষা সামগ্রী কম লাভে বিক্রি করে এক ধরনের জনসেবাও করছেন তিনি। ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের কালাইশ্রীপাড়ার ইয়াছিন প্লাজার ২য় তলায় পুলক গ্রাফিক নামে আছে তার দোকান। তিনি পাইকারি ও খুচরা দুই ভাবেই এসব সামগ্রী বিক্রি করে থাকেন।

Tepantor

এ প্রসঙ্গে বাসির দুলাল তেপান্তরকে বলেন, আমার মূল পেশা আবৃত্তি ও শিক্ষকতা। কিন্তু করোনার ভয়াবহতায় অন্যদের মতো আমার অবস্থাও খুব ভালোনা। স্কুল গুলো বন্ধ হয়ে পড়ে আছে, কোথাও কোন অনুষ্ঠান হচ্ছেনা। ফলে সাধারণ ভাবেই একজন সাধারণ মানুষ হিসেবে আমার চলতে কষ্ট হচ্ছে। তাই বাধ্য হয়ে করোনা সুরক্ষা সামগ্রীর ব্যবসা শুরু করেছি। যদিও ব্যবসার অবস্থা খুব ভালো নয়, তবু কিছু না করার চেয়ে কিছু করা ভালো।

তিনি আরো বলেন, সংস্কৃতি চর্চা আমার হৃদয়ে, মননে ও চিন্তায়। কবি মনির হোসেন’র হাত ধরেই আমার সংস্কৃতি চর্চা শুরু। সেই থেকে এখন পর্যন্ত আমি তিতাস আবৃত্তি সংগঠনের সাথে আছি। বর্তমানে আমি তিতাস আবৃত্তি সংগঠনের সহ-পরিচালক।
করোনার আগে দেশ-বিদেশে আবৃত্তি করার জন্য নিমন্ত্রণ পেতাম। দেশের মধ্যেও বিভিন্ন নিমন্ত্রনে সাড়া দিয়ে বিভাগীয় শহরে গিয়ে আবৃত্তি করতাম।
বর্তমানে বাংলাদেশ টেলিভিশনের “ক” শ্রেণীর তালিকাভুক্ত আবৃত্তি শিল্পী হিসেবে আমরা তিতাস আবৃত্তি সংগঠনের পক্ষ থেকে যুক্ত হয়েছি। ২০ বছর যাবৎ এই আবৃত্তির জগতে আছি। এই জগতে এসেছি তিতাস আবৃত্তি সংঘঠনের পরিচালক মনির হোসেনের হাত ধরে। এর মধ্যে আবৃত্তি বা সংস্কৃতি শিল্পীদের স্বাচ্ছন্দ্যে যে সময় কাটছে এমন না। তবু এর মধ্যেই আমরা ভালো ছিলাম। কিন্তু করোনা সব শেষ করে দিলো। করোনার কারনে আর সবার মতো আমরা শিল্পীরাও ভালো নেই।

Tepantor

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।