বিধবা ভাতার কার্ড দিবে বলে টাকা হাতিয়ে নিচ্ছেন কসবার ইউপি মেম্বার

২৬ আগস্ট, ২০২০ : ২:৫৯ অপরাহ্ণ ৭২৪

তেপান্তর রিপোর্ট: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলার বিনাউটি ইউনিয়নে বিধবা ভাতার কার্ড করে দেওয়ার নামে অসহায় গরিব মানুষদের কাছ থেকে হাজার হাজার টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে ৩ নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য মো. আবদুল্লাহর বিরুদ্ধে। এ বিষয়ে ভুক্তভোগীরা উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন।

তিন-চার বছর ধরে ভুক্তভোগীরা তার পেছনে ঘুরে কার্ড না পেয়ে ইউএনও মাসুদ উল আলমের কাছে অভিযোগ দিয়েছেন।

ঋষিপাড়ার ভুক্তভোগী হরিচন্দ্রের স্ত্রী স্বরলক্ষ্মী অভিযোগ করে বলেন, আব্দুল্লাহ মেম্বার বয়স্ক ভাতার কার্ড করে দেবের বলে ১০ হাজার টাকা নিয়েছেন। তিন বছর ঘুরেও কার্ড না পেয়ে টাকার শোকে হরিচন্দ্র মারা যান। হাজিপুর গ্রামের গফুর মিয়ার ছেলে রউফ মিয়া অভিযোগ করে বলেন, আব্দুল্লাহ মেম্বার বয়স্ক ভাতার কার্ড করে দেওয়ার কথা বলে চার বছর আগে ৫ হাজার টাকা নিয়েছেন। চার বছর যাবৎ এ টাকার সুদ টানছি। অথচ টাকাও পাই না, কার্ডও পাই না। একই অভিযোগ করেন হাজীপুর গ্রামের আবু তাহেরের ছেলে ফারুক মিয়া, ঋষিপাড়ার সাগর ঋষির স্ত্রী সমীত ঋষি, হাজীপুর গ্রামের রেখা বেগম। এ বিষয়ে অভিযুক্ত আব্দুল্লাহ মেম্বার জানান, আমার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সব সত্য নয়। তিনি জানান, খরচের জন্য সামান্য টাকা দিয়েই অভিযোগকারীরা বলছেন, আমাকে অনেক টাকা দিয়েছেন।

ইউএনও মাসুদ উল আলম বলেন, বিনাউটি ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ড মেম্বার আব্দুল্লার বিরুদ্ধে অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে এর সত্যতা পাওয়া গেলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।