ইসলামী অনুশাসনের অনুপস্থিতিই ধর্ষণ বৃদ্ধির মূল কারণ 

১২ অক্টোবর, ২০২০ : ১:৫২ অপরাহ্ণ ৭৬

মুফতী মোহাম্মদ এনামুল হাসান: ইসলামী অনুশাসন অনুপস্থিত থাকায় দেশে আজ ধর্ষণের ঘটনা বৃদ্ধি পাচ্ছে। ব্যক্তি, পরিবার, সমাজ ও রাষ্ট্রকে আজ এই জঘন্যতম অপরাধের ঘটনায় করেছে আতংকিত। পুঙ্গ করে দিচ্ছে দেশের মানবিক মূল্যবোধ । ধর্ষণ বিরুধী অভিযান আর ক্রসফায়ার ই এর স্থায়ী সমাধান হতে পারেনা। দেশ থেকে চিরতরে ধর্ষণকে নির্মূল  করতে প্রয়োজন ইসলামী অনুশাসন ও নৈতিক মূল্যবোধ সম্পর্কে গণসচেতনতা সৃষ্টি করা।

আজ সমাজে যারা ধর্ষক হিসেবে পরিচিত তারা কেউ ই জন্ম থেকে ই ধর্ষক হয়ে জন্মায়নি।  তারা কেন এ জঘন্যতম পথে পা বাড়ালো রাষ্ট্রকে তা ও খতিয়ে দেখতে হবে।

সকলের ই মনে রাখতে হবে আমরা যদি  সত্যিকার অর্থে ই দেশ থেকে সম্পূর্ণরূপে ধর্ষণের মতো জঘন্যতম এই অপরাধকে নির্মূল করতে চাই তাহলে আমাদেরকে ধর্ষণের মূল কারণগুলো  খুজে বের করতে হবে। অন্যথায় শুধুমাত্র ক্রসফায়ার দিয়ে ই এর স্থায়ী সমাধান করা যাবেনা।

দেশেকে ধর্ষণের হাত থেকে বাচাতে আসুন   সর্বস্থরে ইসলামী তাহযিব তামাদ্দুন লালনে এগিয়ে আসি।

প্রত্যেক পরিবার তাদের মা,বোন, স্ত্রী সহ নারী সদস্যদের সুরক্ষায় ইসলামী বিধিবিধান প্রতিপালনে অভ্যস্ত করে তোলার প্রতি ও গুরুত্বারোপে মনোনিবেশ করতে হবে।

প্রতিটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ধর্মীয় ও নীতি নৈতিকতার মূল্যবোধ শিক্ষা বাধ্যতামূলক করা উচিৎ।

সর্বপরি ধর্ষণরোধে আমাদের সকলকে ধর্মীয়, সামাজিক ও রাষ্ট্রীয়ভাবে দায়িত্বশীলের ভূমিকা পালন করে যেতে হবে।

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

  • 25
    Shares