কসবায় করোনার মধ্যেই পটকা ফুটিয়ে, কেক কেটে জন্মদিনের ৩০ অনুষ্ঠান চেয়ারম্যানের

১২ অক্টোবর, ২০২০ : ৫:৩১ অপরাহ্ণ ৩০২

তেপান্তর রিপোর্ট: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট রাশেদুল কাওছার ভূঁইয়া জীবন ৫০ বছরে পা রেখেছেন গত রবিবার। জন্মদিনটিকে স্মরণীয় করে রাখতে করোনার মধ্যেই অন্তত ৩০ জায়গায় অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। ফটকা ফুটিয়ে, কেক কেটে জন্মদিন পালন করা হয়।

করোনার মধ্যে এমন আয়োজন নিয়ে এলাকার সমালোচনার ঝড় বইছে। এমন আয়োজন স্থানীয় সংসদ সদস্য ও আইনমন্ত্রী আনিসুল হকের ভাবমুর্তিতে আঘাত হানবে বলে মনে করা হচ্ছে। ফেসবুকে জন্মদিনের অনুষ্ঠানের ছবি প্রকাশ করায় এ নিয়েও অনেকে ক্ষোভ প্রকাশ করেন। তবে রাজনৈতিক কারণে এলাকার মানুষ এ নিয়ে মুখ খুলতে চাইছেন না।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, কসবা উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহব্বায়ক এম. জি. হাক্কানী, যুবলীগের সভাপতি এম এ আজিজের নেত্বতে কসবা সুপার মার্কেট চত্বরে, মনকাশাইর এলাকায় ছাত্রলীগ সদস্য টিটু নেত্বত্বে, কসবা পশ্চিম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মানিক মিয়ার অফিসের সামনে, বায়েকে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মো. আল-মামুনের নেতৃত্বে, নয়নপুর বাজারে আজমল নামে এক যুবকের নেতৃত্বে, ছাত্রলীগ নেতা কাজী মানিকের নেতৃত্বে, জাজিসারে রনির নেতৃত্বে, সৈয়দাবাদে রনির নেতৃত্বে এসব কেক কাটার আয়োজন করা হয়। উল্লেখিত নেতৃবৃন্দ ছাড়াও কসবা প্রেস ক্লাবের সভাপতি মো. সোলেমান খানকে এসব আয়োজন সার্বক্ষণিক থাকতে দেখা যায়।

সবচেয়ে সমালোচনা হয় নয়নপুর এলাকায় ফটকা ফুটিয়ে কেক কাটা হলে। করোনা পরিস্থিতিতে মানুষ এ ধরণের আয়োজনে বিব্রতবোধ করেন। তবে চেয়ারম্যানের বাড়ি ওই এলাকাতে হওয়ায় কেউ মুখ খুলে কিছু বলেননি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক আওয়ামী লীগ ও ছাত্রলীগ নেতা বলেন, ‘এটা খুবই বাড়াবাড়ি হয়েছে। তবে চেয়ারম্যানেরও উচিত হয়নি বড় জায়গায় যাওয়াটা। সবচেয়ে বড় কথা হলো যেথাবে স্বাস্থ্যবিধি লংঘন করা হয়েছে তাতে করে চেয়ারম্যান আর কাউকে এসব মানতে বলতে পারবেন না।’

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

  • 185
    Shares