কন্যা সন্তান কি মানুষ নয়?

৮ মার্চ, ২০২১ : ৮:৫৭ পূর্বাহ্ণ ৩৮৯

সীমান্ত খোকন: বিষয়টি নিয়ে লিখতে খারাপ লাগছে। কারন, লিখতে হলে ভাবতে হয় আর এসব ভাবতেই খারাপ লাগে খুব। একটু খেয়াল করলে দেখবেন আমাদের বাঙ্গালী সমাজে কন্যা সন্তান জন্ম হলে মানুষ খুশি হয়না। এটা যেন এক ধরনের অভিশাপ। অনেক পরিবারেই কন্যা সন্তান জন্ম হলে ঘরের সবার মুখ কালো হয়ে যায়। সবাই হাতাশ হয়ে পরেন। এবং বাবা-মায়েরা আরেকটা পুত্র সন্তান জন্ম দেওয়ার জন্য উদগ্রীব হয়ে থাকেন।

একজন নারী হয়ে আরেকজন নারীর আগমনকে সহ্য করতে পারেন না আমাদের সমাজের বেশির ভাগ নারী। কেউ যখন জানতে চায় যে ওমুকের ঘরে কি সন্তান জন্ম হয়েছে তখন ছেলে সন্তান হলে হাসিমাখা মুখ নিয়ে বলে ‘মাশাআল্লাহ ছেলে সন্তান হয়েছে’। কিন্তু যখন ছেলে না হয়ে মেয়ে হয় তখন মন খারাপ করে বলে ‘মেয়েটা হয়েছে’। শুধু কি তাই? জন্মের আগেই যখন জানতে পারে গর্ভে কন্যা সন্তান আছে তখন সেটিকে নষ্টও করে ফেলেন অনেকে। এটা আমরা কম-বেশি সবাই জানি। আবার পরিবারের অনেক প্রবীন সদস্য আক্ষেপ করে বলেন, নাতির মুখ দেখে কি মরতে পারবোনা?
আমি ঠিক বুঝিনা কন্যা সন্তানের সাথে মানুষগুলোর কিসের শত্রæতা। কন্যা সন্তানকে তারা এত অপছন্দ কেন করেন।

অনেকে যুক্তি দেখান, কন্যা সন্তান হলে টাকা খরচ করে বিয়ে দিতে হয় এবং সে রোজগার করে সংসার চালাতে পারেনা। যদি তাই হয় তাহলে এর জন্য কি সদ্য জন্ম নেওয়া শিশুটি দায়ী? আপনি নিজেই যখন আপনার ছেলেকে বিয়ে করাবেন যৌতুক নিয়ে বা আপনি নিজেই যখন বিয়ে করেছেন যৌতুক নিয়ে তখন আপনার মেয়েকে যৌতুক দিয়ে বিয়ে দিতে এত দু:খ্য লাগে কেন? আর রোজগার, এখনতো মেয়েরাও রোজগার করে। পরিবারের সমর্থন পেলে মেয়েরা আরো ভালো ভাবে রোজগার করতে পারতো। পুরুষের মতো নারীরাও সবকিছুতে ভুমিকা রাখতে পারতো। নারীরা যা করতে পারেন না তার অধিকাংশ ক্ষেত্রেই পরিবারের বাধার করনে বলেই আমি মনে করি। পৃথিবীতে অনেক নারীই আছে যারা দেশ পরিচালনা সহ অনেক গুরুত্বপুর্ণ দায়ীত্ব পালন করছেন।

ভুলে গেলে চলবেনা যে, কন্যা সন্তানও মানুষ। আমরা কন্যার পেটেই জন্ম নিই এবং কন্যার সাথেই জীবন কাটাই। নারী ছাড়া পুরুষ জীবন চলেনা। তাহলে সেই নারীকেই কেন এত অবহেলা? আসুন মানুসিকতা বদলাই। নারীকেও সম্মান করি। কোন কন্যা সন্তান জন্ম হলে যেন মন খারাপ না করি। সবাইকে নারী দিবসের শুভেচ্ছা।

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।