আখাউড়ায় ফাঁসিতে ঝুলন্ত বৃদ্ধের মরদেহ উদ্ধার

২৭ জানুয়ারি, ২০২১ : ১:০৫ অপরাহ্ণ ৩৯৫

আশরাফুল মামুন: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় ৮০ বছর বয়সী এক বৃদ্ধের ফাঁসিতে যুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। মৃত বৃদ্ধের নাম মোঃ ছিদ্দিক মিয়া (৮০), তিনি উপজেলার মোগড়া ইউনিয়নের আদমপুর গ্রামের মৃত মোঃ নুরু মিয়া বক্সের ছেলে।

আজ বুধবার (২৭ জানুয়ারি) সকালে মৃত বৃদ্ধের ছেলের ঘর থেকে লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।
তবে ছিদ্দিক মিয়া ভারত ও বাংলাদেশের দ্বৈত নাগরিক। তার এক ছেলে থাকে ভারতে এবং অন্য ছেলে থাকেন বাংলাদেশের মোগড়া ইউপির আদমপুর গ্রামে। গত ৬ মাস আগে ছিদ্দিক মিয়া ভারত থেকে সীমান্তের কাঁটা তারের নিচ দিয়ে বাংলাদেশে আসেন।

এটা হত্যা নাকি আত্মহত্যা তাৎক্ষণিকভাবে নিশ্চিত করা যায়নি। তার মৃত্যুর কারণ সম্পর্কে বিস্তারিত কিছু জানা না গেলেও প্রতিবেশী এবং প্রত্যাক্ষদর্শীরা জানান, ধারনা করা হচ্ছে পারিবারিক অশান্তি থেকে এ ঘটনা ঘটতে পারে। লাশ উদ্ধারের সময় দেখা গেছে গলায় কাটা দাগ রয়েছে।

যোগাযোগ করা হলে মৃত ছিদ্দিক মিয়ার বড় ভাই মোঃ ইদ্রিস মিয়া ফোনে বলেন, আমার ভাই ভারতে তার অপর ছেলের সাথে থাকতো। গত ৬ মাস আগে সীমান্তের কাটা তার পেরিয়ে আমাদের বাড়ীতে আসেন। আজ ভোর ৪ টার সময় তার শোয়ার ঘরে ছিদ্দিক মিয়া কে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পেয়ে পুলিশ কে খবর দেই। ইদ্রিস মিয়া আরো বলেন, আমার ভাই ছিদ্দিক মিয়া তার স্ত্রী মারা যাওয়ার পর সে কিছুটা ভিষন্ন হয়ে পড়ে। সে মানসিক ভাবে ভেঙ্গে পড়ে। এই বিষন্নতা থেকেই সে আত্মহত্যা করেছে।

আখাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ রসুল আহমেদ নিজামী লাশ উদ্ধারের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে। তিনি আরো বলেন পোস্টমর্টেম রিপোর্ট হাতে পাওয়ার পর মৃত্যুর কারন সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যাবে।

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।