নবীনগরে সংবাদকর্মীদের মধ্যে প্রথম করোনা ভ্যাকসিন নিলেন মো.সফর মিয়া

৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ : ৩:৪৯ অপরাহ্ণ ২১২

তেপান্তর রিপোর্ট: কোভিড-১৯ এর ভ্যাকসিন প্রদান কার্যক্রমের আজ ৩য় দিন। সংবাদকর্মীদের মধ্যে ব্রা‏হ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলায় প্রথম কোভিড-১৯ এর ভ্যাকসিন নিলেন দৈনিক তৃতীয় মাত্রা’র উপজেলা প্রতিনিধি এবং জনপ্রিয় অনলাইন দৈনিক তেপান্তরের স্টাফ রিপোর্টার মো. সফর মিয়া। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে উপস্থিত হয়ে তিনি ‘কোভিশিল্ড’ নামের এই ভ্যাকসিন নেন। ভ্যাকসিন নেয়ার পর সাংবাদিক মোঃ সফর মিয়া প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বলেন, নবীনগর উপজেলায় সংবাদকর্মীর মধ্যে আমি প্রথম এই ভ্যাকসিন নিতে পেরে নিজেকে গর্বিত মনে করছি।

একই দিনে ভ্যাকসিন নেন নবীনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার একরামুল ছিদ্দিক, নবীনগর প্রেসকাবের নব নির্বাচিত সভাপতি জালাল উদ্দিন মনির, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শান্তি, পুলিশ সদস্য, শিক্ষক, স্বাস্থ্যকর্মীসহ সাধারণ জনগণ। প্রথম দুইদিনের তুলনায় তৃতীয় দিনে এসে কোভিড-১৯ এর ভ্যাকসিন নিতে আসা সকলের মাঝে এক প্রকার উৎসাহ লক্ষ করা গেছে। সকলেই ভ্যাকসিন নিয়ে তাদের অনুভতি ব্যক্ত করতে গিয়ে বলেন, ভ্যাকসিন নেয়ার আগে খানিকটা ভয়ে ছিলাম কিন্তু নেয়ার পর ওই ভয়টা কেটে গেছে এবং কোন প্রকার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া লক্ষ্য করছি না। আমাদের সকলের উচিত এই ভ্যাকসিন নেয়া।

তবে উপজেলা নির্বাহী অফিসার একরামুল ছিদ্দিক জানান, কোন প্রকার গুজবে কান না দিয়ে সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী আমাদের সকলেরই এই ভ্যাকসিন নেয়া উচিত। এর ফলে আমাদের দেশকে আমরা করোনা মুক্ত করতে পারবো ইনশাআল্লাহ।

তৃতীয় দিন শেষে এ পর্যন্ত পুরো উপজেলায় কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন এর ১ম ডোজ নিয়েছেন ২০৭ জন এমনটাই জানিয়েছেন ভ্যাকসিন কার্যক্রমের প্রধান উপজেলা স্বাস্থ কমপ্লেক্সের মেডিক্যাল টেকনলজিষ্ট সৈয়দ মেশকাওয়াত হোসেন।

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।