বিজয়নগরে ৩ সন্তানের জননীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ

৬ মার্চ, ২০২১ : ২:০২ অপরাহ্ণ ৫৬১

আশরাফুল মামুনঃ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগরে ৩ সন্তানের জননী এক গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। উপজেলার হরষপুর ইউনিয়নের জালালপুর দিঘীর পাড় থেকে রহিমা বেগম (৪৫) নামে এক মহিলার লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। আজ শনিবার (৬ মার্চ) সকালে উপজেলার হরষপুর ইউনিয়নের জালালপুর গ্রামের প্রবেশের মুখে শেখের দিঘীর পশ্চিম দক্ষিণ পাড় বনাঞ্চলঘেরা কর্ণার থেকে লাশটি উদ্ধার করে পুলিশ। নিহত রহিমা বেগম উপজেলার হরষপুর ইউনিয়নের মেকশিমুল গ্রামের শাহিদ মিয়ার স্ত্রী।

স্থানীয়রা জানান, শাহিদ মিয়ার দৃষ্টি প্রতিবন্ধী একজন অক্ষম ব্যক্তি।তার স্ত্রী জীবিকার্জনের জন্য প্রতিদিন নিজ গ্রাম থেকে হরষপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে বেড়ান। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ ও প্রশাসন)মোঃ রহিছ উদ্দিন, সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ মোজাম্মেল হোসেন বিজয়নগর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আতিকুর রহমানসহ পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা।

হরষপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সারোয়ার রহমান ভূঁইয়া বলেন, ‘রহিমা একজন নিরীহ মহিলা। আমার জানা মতে তার কোনও শত্রু ছিল না। তার স্বামী দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ও দরিদ্র হওয়ায় অভাবের টানাপড়েন ছিল দীর্ঘ দিনের। তাই সে আশেপাশের গ্রামে কাজ করার জন্য প্রতিদিন সকালে যেয়ে রাতে ফিরে আসত। এটি দুর্ঘটনা নাকি পরিকল্পিত হত্যা এ নিয়ে এলাকায় গুঞ্জনের সৃষ্টি হয়েছে।আমি প্রকৃত ঘটনা উদ্ঘাটন করে প্রকৃত দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি জানাচ্ছি’।

বিজয়নগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আতিকুর রহমান বলেন, ‘নিহতের লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় নিহতের পরিবার থেকে থানায় অভিযোগ প্রক্রিয়া চলছে।অভিযোগ পাবার পরে তদন্তপূর্বক পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।