বিজয়নগরে স্বামী ও স্ত্রীর দু’পক্ষের সংঘর্ষে যুবক নিহত, আটক ২

১৫ জুন, ২০২১ : ৫:২৪ অপরাহ্ণ ৫৮৭

শেখ রাজেন: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর উপজেলায় স্বামী ও স্ত্রীর পক্ষের লোকজনের সংঘর্ষে জিহাদ (৩২) নামের এক যুবক ছুরিকাঘাতে নিহত হয়েছেন। (১৫) জুন মঙ্গলবার বিকেল ৩টার দিকে ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় জিহাদ মারা যান। এ ঘটনায় পুলিশ মালু মিয়া (৭০) এবং হানিফ মিয়া (৩০) নামে ২ জন কে গ্রেপ্তার করেছে।

প্রত্যাক্ষদর্শীরা জানান, কাশিনগরের প্রভাবশালী মাদক ব্যবসায়ী ইব্রাহিম মিয়ার মেয়ে নিপা আক্তারকে বিয়ে করেন একই এলাকার মালু মিয়ার ছেলে সেলিম মিয়া। সম্প্রতি নিপার সঙ্গে তার স্বামীর মনোমালিন্য চলছিল। এনিয়ে দুই পরিবারের মাঝে অমিল চলে আসছিল। সোমবার (১৪ জুন) সেলিমের মা এর সঙ্গে সেলিমের স্ত্রী নিপার তর্কবিতর্ক হয়। তর্কবিতর্ক চলাকালে শাশুড়ী তার ছেলের বউ নিপাকে বলেন, ‘তোমার বাবা মাদক ব্যবসায়ী’। একথা নিপা তার বাবা ইব্রাহিমকে জানালে তার লোকজন সেলিমের বাড়িতে গিয়ে হামলা করেন।
(১৫) জুন সকালে ইব্রাহিমের লোকজনকে স্থানীয় বাজারে পেয়ে মালু মিয়ার লোকজন হামলা করেন। এনিয়ে গ্রামের সড়কে দুই গ্রুপের পক্ষের লোকজন সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। এসময় ইব্রাহিমের বাসার কাজের ছেলে জিহাদ মিয়া ছুরিআঘাত হলে তাকে এলাকাবাসী উদ্ধার করে ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা জান।

বিজয়নগর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) লোকমান হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। ইব্রাহিম মিয়ার বেয়াই মালু মিয়াকে এবং হানিফ মিয়া নামে ২ জন কে আটক করা হয়েছে। মরদেহ জেলা সদর হাসপাতালের মর্গে ময়নাতদন্তের জন্য রাখা আছে।

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।