ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতাল থেকে ৬ দালাল আটক

১৭ জুন, ২০২১ : ৩:০৫ অপরাহ্ণ ৯০১

শেখ রাজেন: ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে ৬ দালালকে গ্রেফতার কর করা হয়েছে। বৃহষ্পতিবার সকালে তাদের আটক করা হয়। ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট প্রশান্ত বৈদ্য ও কিশোর কুমার দাস এই অভিযান পরিচালনা করেন।

আটককৃতরা হলো, শহরের হালদারপাড়ার মামুন (৪৫), পশ্চিম মেড্ডার মোহাম্মদ শিপন (২৭),
শিমরাইলকান্দি রাসেল বকসী (২৫),
সুহিলপুরের আব্দুল্লাহ (৪০), মহেশপুরের শাহপরান ( ২০) ও কসবার মুলগ্রামের মোহাম্মদ ছোটন (৩৫)।

গ্রেফতারকৃতরা দূর-দূরান্ত থেকে চিকিৎসা নিতে আসা রুগিদের প্ররোচনা ও প্রলোভন দেখিয়ে অন্য হাসপাতালের বা সদর হাসপাতালের আশেপাশে ক্লিনিকে নিয়ে যায় এবং প্রতারণার মাধ্যমে বিপুল পরিমাণ টাকা রুগিদের কাছ থেকে হাতিয়ে নেয়।
দালালরা রোগী ভাগিয়ে বিভিন্ন হাসপাতালে নেওয়ার বিনিময়ে একটি নির্দিষ্ট কমিশন পেয়ে থাকে।
পাশাপাশি দালাদের হাত ধরে যেসব রোগীরা চিকিৎসার জন্য এসব ডায়াগনস্টিক সেন্টার বা হাসপাতালে যান তারা অনেকেই ঠিকমতো চিকিৎসা না হওয়ার অভিযোগ রয়েছে।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট প্রশান্ত বৈদ্য ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কিশোর কুমার দাস তেপান্তরকে বলেন এ ধরনের অভিযান আগামীতেও অব্যাহত থাকবে ।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডাক্তার আশিক বলেন, আজকের দালালের বিরুদ্ধে যে অভিযান পরিচালিত হয়েছে এতে উনি অনেক সন্তুষ্ট। এই ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকলে আগামীতে এ ধরনের অনৈতিক কার্যকলাপ ঘটবেনা বলে উনি মনে করেন।
তাছাড়াও উনি বলেন রোগীদের যে কোনো সমস্যায় উনি সুষ্ঠু ব্যবস্থা নিবেন।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট প্রশান্ত বৈদ্য ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কিশোর কুমার দাস হাসপাতাল এলাকা অভিযান পরিচালনা করে সেই আটককৃত ছয়জন দালালকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দেন।

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।