সদর হাসপাতালে করোনা টেস্টের লাইনে স্বজনপ্রীতির অভিযোগ,কর্তৃপক্ষের “ডেমকেয়ার” ভাব

৯ আগস্ট, ২০২১ : ১১:০৫ পূর্বাহ্ণ ৪৩১

তেপান্তর রিপোর্ট: ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে করোনা পরিক্ষার জন্য ফরম সংগ্রহের জন্য সাধারণ মানুষের যেই লাইন তৈরি হয় সেখানে স্বজনপ্রীতি ও অনিয়ম করে ফরম দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এই বিষয়টি সদর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে জানানোর পরও তারা বিষয়টি সমাধান করার বদলে এড়িয়ে যাচ্ছেন।

সোমবার সকাল ৯টায় সদর হাসপাতাল চত্বরে গিয়ে দেখা যায় ফরম গ্রহীতাদের দীর্ঘ লাইন। লাইনের সাধারন মানুষ অভিযোগ করেন, হাসপাতালের স্টাফ ও বিভিন্ন “ভাই”দের রেফারেন্সে লাইনের নিয়ম না মেনে ভিতরে ঢুকে ফরম নিয়ে চলে যাচ্ছে। অথচ আমরা তিন ঘন্টা লাইনে দাড়িয়ে থেকেও ভিতরে প্রবেশ করতে পারছিনা।

তারা আরো বলেন, এমনও হয় লাইনের মাঝখানে থেকেও এক জন লোক ৩/৪ টা এমনকি ৫/৭টা ফরম নিয়ে যায়। এভাবে চলার পর কিছুক্ষণ পর হাসপাতালের স্টাফরা এসে জানিয়ে গেলো আর মাত্র ২০ টি ফরম আছে। স্বজনপ্রীতি করে বেছে বেছে কয়েকজনকে কয়েকটি করে ফরম দেওয়া হয়েছে। তাহলে দীর্ঘক্ষণ যারা লাইনে দাড়িয়ে আছে তাদের কি হবে? প্রশ্ন ভুক্তভোগীদের।

এবিষয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল (সদর) হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাক্তার এনামুল হাসানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি এসব অভিযোগ অস্বীকার করেন। এমনকি তাকে ভুক্তভোগীদের বক্তব্যসহ ভিডিও দেখালেও তিনি কোন গুরুত্ব দেননি।

 

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।