আখাউড়ায় ইউএনওর হস্তক্ষেপে কিশোরীর বিয়ে বন্ধ ১০ হাজার টাকা জরিমানা

৯ আগস্ট, ২০২১ : ৬:২৭ অপরাহ্ণ ২২০

আশরাফুল মামুন: ব্রাহ্মণবাড়িয়া আখাউড়া উপজেলার ধরখার ইউপির ৭ম শ্রেনীর ১ ছাত্রীর বাল্যবিয়ে বন্ধ করে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রুমানা আক্তার। সোমবার (৯ আগষ্ট) উপজেলার ধরখার ইউনিয়েন নূরপুর গ্রামে সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী বাল্য বিবাহের হাত থেকে রক্ষা পেল। আজ কিশোরীর বিয়ের দিন ধার্য থাকলেও মোবাইল কোর্টের খবর পেয়ে অবশেষে বর আসেনি। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার পুলিশ ফোর্সসহ মেয়ের বাড়িতে হাজির হয় এবং মেয়ের মা সহ গণ্যমান্য অন্যান্য ব্যক্তিবর্গকে জিঙ্গাসাবাদ এবং কাগজপত্র পর্যালোচনায় দেখা যায় মেয়ের বয়স ১৮ বছর পূর্ন হয় নি। তার বয়স মাত্র ১৪ হয়েছে। অপ্রাপ্ত বয়স্ক মেয়ের বিবাহের ব্যবস্থা করায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে মেয়ের মা কে বাল্য বিবাহ নিরোধ আইন ২০১৭ এর ৮ ধারা মোতাবেক ১০,০০০ টাকা অর্থ দন্ডে দন্ডিত করেন। তাছাড়া মেয়ের মা এই মর্মে মুচলেকা প্রদান করেন যে, মেয়ের বিবাহের বয়স পূর্ণ না হওয়া পর্যন্ত বিবাহ সংক্রান্ত কোনো কার্যক্রম গ্রহন করবেন না।

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।