নবীনগরে ভ্রাম্যমাণ আদালতে ৭ মাংস বিক্রেতাকে জরিমানা

২২ নভেম্বর, ২০১৯ : ৫:০৭ অপরাহ্ণ ৩১৯

মোঃ সফর মিয়া: নবীনগরে প্রাণীসম্পদ কর্মকর্তার প্রত্যয়ণ বিহীন এবং অস্বাস্থ্যকর ও নোংরা পরিবেশে পশু জবাই করে মাংস বিক্রি করার অপরাধে সাতজন মাংস বিক্রেতাকে ৬৯ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। উপজেলার কয়েকটি বাজারে শুক্রবার সকালে অভিযান চালিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে এই জরিমানা আদায় করা হয়। ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ মাসুম।
জানা গেছে, উপজেলার বাঙ্গরা, জিনোদপুর, ভোলাচং, সদর ও করিম শাহ বাজারসহ বিভিন্ন বাজারে দীর্ঘদিন ধরে অস্বাস্বাস্থ্যকর ও নোংরা পরিবেশে পশু জবাই করে মাংস বিক্রি করে আসছিলেন মুনাফালোভী কতিপয় মাংস বিক্রেতা। অভিযোগ রয়েছে, পশু জবাই করার আগে প্রাণীসম্পদ কর্মকর্তার প্রত্যয়ন নেয়ার নিয়ম থাকলেও, পশু জবাই করার সময় এসব প্রত্যয়ণ ছাড়াই লাইসেন্সবিহীন ভাবে প্রকাশ্যে অনেক রোগাকৃত পশুকে জবাই করে বিভিন্ন বাজারে সেগুলো বিক্রি করে আসছিলেন কতিপয় মাংস বিক্রেতা।
এমন অভিযোগের ভিত্তিতে আজ সকালে ইউএনও’র নেতৃত্বে উপজেলার পাঁচটি বাজারে অভিযান চালায় ভ্রাম্যমাণ আদালত। এসময় সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ইউএনও মাসুম বলেন”পশু জবাই ও মাংসের মান নিয়ন্ত্রণ আইনে সাতজন কসাইকে আলাদা সাতটি মামলায় মোট ৬৯ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে এবং এ অভিযান ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে।

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।