বিজয়নগরে সংখ্যালঘুর উপর যুবলীগ নেতার হামলা

১৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১ : ৫:৫০ অপরাহ্ণ ৭৫০

তেপান্তর রিপোর্ট: বিজয়নগরে এক হিন্দু সংখ্যালঘুর দোকান লুটপাট ও পরিবারের উপর হামলা করেছে বিজয়নগর উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো কাউসার মিয়া।

গত রোববার (১২ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা ৭ টার দিকে উপজেলার চান্দুরা ইউনিয়নের আলাদাউদপুর গ্রামের ফুলতলী মোরে রিদু শীল (৬০) নামে এক সংখ্যালঘুর দোকানে এই ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা মানিক দেব জানান, সন্ধ্যার সময় একই গ্রামের ইকবাল মিয়ার ছেলে সাগর মিয়া (২০) এর কাছে দোকান বাকির টাকা চাওয়াকে কেন্দ্র করে তর্ক বিতর্ক হয়। কেন সাগর মিয়ার সাথে তর্ক করছে সেজন্য যুবলীগ নেতা কাউসার মিয়া (৩৫) তার অনুসারীদের নিয়ে অতর্কিতভাবে হামলা করে রিদু শীলকে আহত করে এবং তার দোকানপাট ভাঙচুর ও লুটপাট চালায়।

এ সময় আশেপাশে কয়েকজন রিদু শীলকে বাঁচাতে এগিয়ে আসলে তাদের মধ্যে অনেকে আহত হয়ে আমতলী বাজার ও চান্দুরা বাজারে প্রাথমিক চিকিৎসা গ্রহণ করেন। অপর দিকে রিদু শীলের অবস্থা অবনতির দিকে গেলে তাকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

ঘটনার খবর পেয়ে বিজয়নগর থানার অফিসার ইনচার্জ মির্জা মোহাম্মদ হাসানের নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে এসে যুবলীগ নেতা কাউছারকে আটক করলে কাউছারের অনুসারীরা তাকে জোরপূর্বক পুলিশের কাছ থেকে ছিনিয়ে নেয়।

এ সময় কাউছারের অনুসারীরা পুলিশের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ মিছিল করে বিজয়নগর থানার অফিসার ইনচার্জ মির্জা মোহাম্মদ হাছানকে প্রত্যাহার দাবী জানান।

এবিষয়ে বিজয়নগর থানার ওসি মির্জা মোহাম্মদ হাসান তেপান্তরকে জানান, কাউসারকে পুলিশের কাছ থেকে ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনা ঘটেনি। আর ভুক্তভোগী ব্যক্তি থানায় অভিযোগ দিলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।