নবীনগরে নৌকার বিদ্রোহী প্রার্থীর আস্ফালন

২৬ নভেম্বর, ২০২১ : ২:২৩ অপরাহ্ণ ২০২

মোঃ সফর মিয়া: আসন্ন স্থানীয় সরকার নির্বাচনের তৃতীয় ধাপে তৃণমূল থেকে উপজেলা, জেলা পর্যায়ের যাচাই-বাছাই শেষে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনা ও সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের স্বাক্ষর করা চূড়ান্ত মনোনয়নের চিঠি স্ব স্ব প্রার্থীদের হাতে তুলে দেয়া হয়। এরই ধারাবাহিকতায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া নবীনগরের ১৩ টি ইউনিয়নের দলীয় প্রার্থীরা নৌকার চূড়ান্ত চিঠি হাতে পেয়ে নিজ নিজ ইউনিয়ন থেকে ২৮ নভেম্বর অনুষ্ঠিত নির্বাচনে জয় লাভ করতে প্রচার প্রচারণায় ব্যস্ত। ঠিক এই সময় অন্যদিকে নৌকার মনোনয়নে যাচাই-বাছাইয়ে পেছনে থাকা প্রার্থীরা নৌকার পরাজয় নিশ্চিত করতে মাঠে মরিয়া হয়ে নৌকার কর্মী সমর্থকদের হুমকি ধামকিসহ নানান কূটকৌশলে ব্যস্ত সময় পার করছেন। এরই বাস্তব প্রতিফলন ঘটাতে নির্বাচনের ঠিক তিন দিন পূর্বে উপজেলার শ্যামগ্রাম ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী আনারস প্রতীকের প্রার্থী মোঃ শাহজাহান সিরাজের কর্মী সমর্থকরা শ্রীঘর গ্রামের কুমারপাড়ার সনাতন ধর্মাবলম্বীর লোকদের হুমকি ধামকি প্রদান করেন। ঘটনার সত্যতা যাচাইয়ে একজন গণমাধ্যম কর্মী আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মোঃ শাহজাহান সিরাজের মুঠোফোনে ফোন করলে তিনি নিজেকে তার এলাকায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার চেয়ে বেশি জনপ্রিয় বলে দাবি করেন।শুধু তাই-ই নয় সে জোরগলায় বলেন, তার নিজ গ্রামে যদি শেখ হাসিনাও তার সাথে নির্বাচন করে তাহলে তার ওয়ার্ডের সকল সনাতন ধর্মাবলম্বীর লোকেরা শেখ হাসিনাকে ভোট না দিয়ে তাকে ভোট দিবে। এমনকি বিরোধী দলীয় নেত্রী খালেদা জিয়া এবং বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও তার এলাকায় তার সাথে নির্বাচন করে পাস করতে পারবেন না।

এবিষয়ে শ্যামগ্রাম ইউনিয়ন থেকে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আনারস প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃ শাহজাহান সিরাজ কে মুঠোফোনে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন,আমি কথার রেফারেন্স হিসেবে এই কথা বলে ফেলেছি বলে পূনরায় তার জনপ্রিয়তা সবার ঊর্ধ্বে বলে দাবি করেন।

শ্যামগ্রাম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের পদে থেকে দলীয় সভাপতি গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সম্পর্কে এমন মন্তব্য করেছেন এই বিষয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে কি ধরনের সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে মুঠোফোনো জিজ্ঞাসা করা হলে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম এ হালিম বলেন,বিষয়টি দুঃখজনক ও লজ্জাজনক, এ জাতীয় নেতা অথবা তৃনমুল কর্মী আমরা নবীনগর উপজেলা আওয়ামী লীগে থাকা সমুচিত নয়,এধরণের উক্তিকারী আওয়ামী লীগ করার যোগ্যতা রাখে না।

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।