নবীনগর পৌরসভার কাউন্সিলর ও বিএনপি নেতা আবু ছায়েদ গ্রেপ্তার

৮ জানুয়ারি, ২০২২ : ৫:৪৩ অপরাহ্ণ ১৮৪

মো. সফর মিয়া: ব্রা‏হ্মণবাড়িয়ার নবীনগর পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও পৌর বিএনপি’র সাবেক সভাপতি আবু ছায়েদ (৫৫) কে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শনিবার (০৮/০১/২২) সকালে তাকে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরন করা হয়েছে।

জানা যায়, গত ৬ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার ৬ষ্ঠ ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মনোনয়ন ফরম যাচাই বাছাইয়ের দিন উপজেলার বড়াইল ইউনিয়নের গোসাইপুর ৩নং ওয়ার্ডের মেম্বার পদপ্রার্থী রফিকুল ইসলাম যাচাই বাছাই শেষে বিকেলে বাড়ি যাওয়ার পথিমধ্যে পৌর এলাকার মনতলা খেয়া ঘাটে নৌকায় মোটর সাইকেল পাড়াপাড়কে কেন্দ্র করে খাজানগর গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে জহিরুল ইসলামের সাথে বাক-বিতন্ডা হয়। বাক-বিতন্ডার এক পর্যায়ে জহিরুলের নেতৃত্বে রফিকুল ও তার ছেলে সাকিবের উপর হামলা চালানো হলে ওই হামলায় রফিকুল ও তার ছেলে সাকিবসহ প্রায় ৮-১০জন আহত হয়। এমনকি নৌকায় থাকা কয়েকজন নারীও পানিতে পড়ে যান। গুরুতর আহত অবস্থায় রফিকুল ও তার ছেলে সাকিবকে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদেরকে জেলা সদর হাসপাতালে রেফার করেন। বর্তমানে বাবা-ছেলে ব্রা‏হ্মণবাড়িয়া সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

এ ঘটনায় গত ৭ জানুয়ারি বড়াইল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হক মোল্লা বাদী হয়ে পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আবু ছায়েদসহ ৯জনকে আসামী করে নবীনগর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা নং- ০৪।

মামলার বাদী নাজমুল হক মোল্লা জানান, ন্যাক্কারজনক ঘটনার জন্য আমি দলের পক্ষ থেকে মামলার বাদী হয়েছি এবং দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি।

এ বিষয়ে নবীনগর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) নূরে আলম জানান, দায়ের করা মামলায় গতকাল রাতে কাউন্সিলর আবু ছায়েদকে আটক করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে বড়াইল ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান জাকির হোসেন জানান, ঘটনার সাথে জড়িতদের অবিলম্বে গ্রেপ্তারের পাশাপাশি ন্যায় বিচার দাবি করছি।

তেপান্তরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।